মাদারীপুরের শিবচরে ওসিকে সঙ্গে নিয়ে পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। 

আসন্ন পঞ্চম ধাপের পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে শিবচর পৌরসভায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. আওলাদ হোসেন খান মঙ্গলবার সকালে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামানের কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন শিবচর থানার ওসি মো. মিরাজ হোসেন। পরে প্রার্থীর সঙ্গে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনা সৃষ্টি হয়। 

তবে ওসি মিরাজ হোসেন দাবি করেছেন নিরাপত্তা রক্ষার জন্য তিনি সেখানে উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন, আমি প্রার্থীর সঙ্গে মিছিলে বা বাইরে কোথাও একসঙ্গে ছিলাম না। 

মনোনয়নপত্র জমাদানের সময় আপনার হাতে কাগজপত্র কেন? এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ইউএনওর সঙ্গে কাগজপত্র রিসিভ করছিলাম। 

কাগজপত্র রিসিভ করা আপনার কাজ কিনা এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি কোন উত্তর দেননি। 

এব্যাপারে মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও মাদারীপুর জেলা পুলিশের মুখপাত্র মো. আব্দুল হান্নানের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি। 

শিবচর পৌর নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান জানান, কোন সরকারি কর্মকর্তা প্রার্থীর সঙ্গে মনোনয়ন জমা দিতে পারেন না। যদি কেউ করে থাকেন সেটা আচরণবিধি লঙ্ঘন। 

শিবচরের ওসি মনোনয়ন জমাদানের সময় প্রার্থীর সঙ্গে ছিলেন। এটা পারেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাব তিনি দিতে রাজি হননি। 

মাদারীপুরের পুলিশ সুপার মাহবুব হাসান বলেন, কোন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় ওসি বা পুলিশ সদস্যরা আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে থাকতে পারে। তবে ওসি কোন প্রার্থীর সঙ্গে ছবি তোলার কথা নয়। তিনি যদি প্রার্থীর সঙ্গে একত্রিত হয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন তাহলে সেটা ঠিক করেনি। আর তার ছবিটি আমি এখনো দেখিনি, যদি তিনি এমন ছবি তুলে থাকেন তাহলে তার বিরুদ্ধে আমাদের বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, পঞ্চম ধাপে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি মাদারীপুর সদর ও শিবচর পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন উপলক্ষে মঙ্গলবার ছিল মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। এদিন সকালে শিবচর পৌরসভার মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. আওলাদ হোসেন খান রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। অপরদিকে মাদারীপুর পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী খালিদ হোসেন ইয়াদ, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী জাহান্দার আলী জাহান, জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী লিয়াকত হোসেনসহ ৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।