চট্টগ্রামে এক ব্যবসায়ীকে পরিকল্পিতভাবে ইয়াবা ও কার্তুজ দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে গ্রেপ্তার হয়েছেন পাঁচ ব্যক্তি। গত শনিবার রাতে নগরীর খুলশী থানার জাকির হোসেন সড়কে ‘হেয়ার অ্যান্ড ফেয়ার’ নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে প্রথমে দু’জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পরে আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা হলেন ইফতেখার করিম চৌধুরী, মো. সোহেল, নজরুল ইসলাম, মো. ফয়সাল ও জামাল হোসেন। ফয়সাল নগরীর হালিশহর বি-ব্লকের এবং বাকিদের বাসা লালখানবাজার।

চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মো. আবদুর রউফ বলেন, ইফতেখার ও নজরুল খুবই ঘনিষ্ঠ। নজরুলের তথ্য অনুযায়ী, ইফতেখার তাকে ইয়াবা ও কার্তুজ দিয়ে ব্যবসায়ী মান্নান শেখকে ফাঁসানোর দায়িত্ব দেয়। তখন নজরুল অটোরিকশা চালক জামালের মাধ্যমে ফয়সাল ও সোহেলকে এ কাজের জন্য ভাড়া করে। তবে ইফতেখার কেন মান্নানকে ফাঁসাতে চেয়েছে, এর পেছনে কারা আছে, জানাতে পারেনি নজরুল। পরে অভিযুক্তদের দেওয়া তথ্যে ভিত্তিতে ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সোফার নিচ থেকে ২০০টি ইয়াবা ও চার রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। ইফতেখারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।

ব্যবসায়ী মান্নান জানান, ঢাকা ও চট্টগ্রামের ব্যবসা নিয়ে কয়েকজনের সঙ্গে তার বিরোধ রয়েছে। এর জের ধরে তাকে ফাঁসানোর অপচেষ্টা হতে পারে। তবে গ্রেপ্তার হওয়া কাউকেই তিনি চেনেন না।

বিষয় : ইয়াবা কার্তুজ গ্রেপ্তার

মন্তব্য করুন