বগুড়ার আদমদীঘিতে ঢাকাগামী বাসের ধাক্কায় সিএনজির এক যাত্রী নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আরো দুইজন। সোমবার ভোর ৬টায় উপজেলার শিবপুর ফায়ার সার্ভিসের কাছে বগুড়া-নওগাঁ মহাসড়কের এ দুর্ঘটনা ঘটে।  নিহত ওই যাত্রীর নাম শিল্পী বিশ্বাস। তিনি যশোর জেলার অভয়নগর উপজেলার হরিশপুর গ্রামের দিপঙ্কর বিশ্বাসের স্ত্রী ও বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার মাঝিহাট গ্রামীণ ব্যাংক শাখার ম্যানেজার ।

আহতরা হলেন- শিল্পী বিশ্বাসের স্বামী দিপঙ্কর বিশ্বাস (৪২) এবং সিএনজি চালক শেখ জিয়া হাসান (৩৫)। দিপঙ্কর বিশ্বাস শিবগঞ্জ উপজেলার বুড়িগঞ্জ গ্রামীণ ব্যাংক শাখা ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

আদমদীঘি ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, দিপঙ্কর বিশ্বাস ও তার স্ত্রী শিল্পী বিশ্বাস চাকরিসূত্রে শিবগঞ্জ উপজেলায় থাকেন। বাড়িতে ছুটি কাটিয়ে গত রোববার ভোররাতে সীমান্ত ট্রেন যোগে সান্তাহার স্টেশনে নেমে একটি সিএনজি রিজার্ভ করে তারা কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। সোমবার ভোর ৬টায় তাদের বহনকারী যানটি আদমদীঘির ফায়ার সার্ভিসে কাছাকাছি পৌঁছলে ঢাকাগামী একটি কোচ পিছন থেকে সিএনজিটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিটি দুমড়ে মুচড়ে সড়কের পাশে পড়ে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ওই স্থানে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে আদমদীঘি হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক শিল্পী বিশ্বাসকে মৃত ঘোষণা করেন। আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হযেছে।

গ্রামীণ ব্যাংক জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার এরিয়া ম্যানেজার আব্দুস ছালাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ফায়ার সার্ভিস টিম নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে ল্যাগেজসহ অন্যন্য মালাপত্র হস্তান্তর করেছেন।