রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, রেলকে আধুনিক করার জন্য সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। সরকার এখন রেলওয়ের বেহাত হয়ে যাওয়া সম্পদ উদ্ধার করছে। রেলের কোনো জমি বেহাত থাকবে না।

সোমবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও রোড রেল স্টেশনের উঁচু ও বর্ধিত প্ল্যাটফর্মের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন রেলমন্ত্রী।

তিনি বলেন, প্রতি জেলাকে রেলওয়ের সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। আগামীতে পঞ্চগড় থেকে রেলের মাধ্যমে ভারতের শিলিগুড়ি যাওয়া যাবে। 

তিনি বলেন, ২০১১ সালে বর্তমান সরকার রেলওয়েকে আলাদা মন্ত্রণালয়ে রূপান্তর করে রেলের উন্নয়নকে গতিশীল করেছে। রেল এখন নিজস্ব গতিতে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। আগামীতে ব্যাপক উন্নয়ন ঘটবে রেলে।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোট যখন ক্ষমতায় এসেছিল তখন রেলওয়ের ১২ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারীকে ছাঁটাই করে, রেলওয়েকে ধ্বংসের মধ্যে ফেলে দিয়েছিল। আর এখন বর্তমান সরকার রেলওয়ের ব্যাপক উন্নয়ন করছে।

এ সময় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন-রেলওয়ের মহাপরিচালক ডিএন মজুমদার, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব সেলিম রেজা, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কেএম কামরুজ্জামান সেলিম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যার মু. সাদেক কুরাইশী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অরুনাংশু দত্ত টিটো, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি নাজমুল হুদা এ্যাপোলো প্রমুখ।