জয়পুরহাটে অসুস্থ নবজাতককে হাসপাতালে রেখে পালিয়ে গেছেন বাবা-মা। সোমবার সন্ধ্যার দিকে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে নবজাতককে রেখে পালিয়ে যান তারা। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতেই শিশুটির মৃত্যু হয়।

জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. খন্দকার মিজানুর রহমান জানান, রোববার রাত পৌনে ৮টার দিকে ৩/৪ দিন বয়সের অসুস্থ ছেলে শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। ভর্তির সময় এক পুরুষ ও নারী ওই শিশুর মা-বাবা পরিচয় দেন। হাসপাতালের রেজিস্ট্রারে তাদের ঠিকানা জেলার পাঁচবিবি উপজেলার রতনপুর গ্রামে বলে উল্লেখ করা হয়। ভর্তি রেজিস্টারে ওই শিশুর বাবার নাম সাগর হোসেন লেখা থাকলেও মায়ের নাম উল্লেখ নেই।

ডা. মিজানুর রহমান আরও জানান, ভর্তির পর ওই নবজাতককে হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। চিকিৎসা চলাকালীন সোমবার সন্ধ্যার দিকে কোনো এক সময় মা-বাবা পরিচয়দানকারী ওই দুইজন হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যান। পরে রাতে চিকিৎসা অবস্থায় শিশুটি মারা যায়। পরে চিকিৎসক ও নার্সরা শিশুটির মরদেহ হস্তান্তরে বাবা-মার খোঁজ করলেও তাদের পাওয়া যায়নি। এমনকী তাদের দেওয়া ঠিকানায় লোক পাঠিয়েও খোঁজ মেলেনি। পরে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়।

হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ওই শিশুর বাবা-মা পরিচয়দানকারী দুইজনকে শনাক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।  এরপরও যদি তাদের পাওয়া না যায় তাহলে সরকারিভাবে শিশুটির মরদেহ দাফনের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান ডা. খন্দকার মিজানুর।

জয়পুরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর জাহান জানান, কি কারণে শিশুটিকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে রেখে তার মা-বাবা চলে গেলেন তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। শিশুটির বাবা-মা শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।