ফরিদপুর সদর উপজেলার গেরদা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) উপনির্বাচনে ভোটের প্রচারের সময় মহিলা দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী নায়াব ইউসুফের গাড়িবহরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় গেরদার বুকাইলের মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

শনিবার দুপুরে শহরের ময়েজ মঞ্জিলে সংবাদ সম্মেলনে চৌধুরী নায়াব ইউসুফ অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা 'জয় বাংলা' স্লোগান দিয়ে তার গাড়িতে হামলা করে। এ ছাড়া তার গাড়ির সামনে মোটরসাইকেল রেখে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা হয়। 

তিনি বলেন, শুক্রবার বিকেলে ধানের শীষের প্রার্থী আরিফ হোসেনের নির্বাচনী সভা শেষে তিনি বুকাইলের মোড় এলাকায় গণসংযোগে নামেন। তখনই নৌকা প্রতীকের উচ্ছৃঙ্খল কর্মীরা উস্কানিমূলক নানা স্লোগান দিতে থাকে। ঘটনার পরপরই তিনি বিষয়টি পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামানকে জানিয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপনির্বাচনের চেয়ারম্যান প্রার্থী আরিফ হোসেন বলেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিএনপির নেতাকর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এ পর্যন্ত নৌকার সমর্থকদের হামলায় তার তিন কর্মী গুরুতর আহত হয়েছেন।

নায়াব ইউসুফের গাড়িবহরে হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবল সাহা বলেন, এ ধরনের কোনো হামলার সঙ্গে আওয়ামী লীগ বা এর অঙ্গসংগঠনের কেউ জড়িত নয়। তবে দলকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে কেউ যদি হামলা করে থাকে, সেক্ষেত্রে পুলিশ প্রশাসন তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবে বলে আশা করি।

বিষয় : ফরিদপুর চৌধুরী নায়াব ইউসুফ

মন্তব্য করুন