খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার ভিতরবানছড়া এলাকায় গত মঙ্গলবার ভোরে যৌথ বাহিনীর অভিযানে অস্ত্র-গুলিসহ ইউপিডিএফের (প্রসীত) চার নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে। এ সময় তাদের কাছ থেকে প্রায় ছয় লাখ টাকাসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বুধবার সকালে তাদের দীঘিনালা থানায় হস্তান্তর করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে বুধবার দীঘিনালা থানায় অস্ত্র আইনে একটি এবং চাঁদাবাজির অভিযোগে আরেকটি মামলা করা হয়েছে। বিকেলে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আটকরা হলো- দীঘিনালা উপজেলার ভিতরবানছড়া গ্রামের জিতেন্দ্র চাকমার ছেলে পূর্ণ জীবন চাকমা ওরফে দিগন্ত, মধ্য বানছড়া গ্রামের চন্দ্র দেব চাকমার ছেলে সমর বিকাশ চাকমা ওরফে নিবেদন, কৃপাপুর গ্রামের মৃত আরনন্দ চাকমার ছেলে প্রত্যয় চাকমা ওরফে প্রীতি এবং রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার হাগলাছড়া গ্রামের প্রিয়রঞ্জন চাকমার ছেলে বিধূভূষণ চাকমা ওরফে অনিক।

দীঘিনালা থানার ওসি উত্তম চন্দ্র দেব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গোপন সংবাদে যৌথ বাহিনীর অভিযানে ভিতরবানছড়া এলাকার পরাজয় চাকমার বাড়ির পাশের সেগুন বাগান থেকে তাদের আটক করা হয়।

পরে তল্লাশি চালিয়ে তাদের কাছ থেকে দুটি বিদেশি পিস্তল, তিনটি ম্যাগাজিন, ৪০ রাউন্ড গুলি, পাঁচ লাখ ৭৪ হাজার ৫২১ টাকা, আটটি মোবাইল ফোন, ১০টি মোবাইল সিম, তাদের ব্যবহূত ব্যাগ এবং চাঁদা আদায়ের রসিদ বই জব্দ করা হয়।

এদিকে, এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনের চার সদস্যকে আটকের নিন্দা জানিয়েছেন প্রসীতপন্থি ইউপিডিএফের খাগড়াছড়ি জেলার সংগঠক অংগ্য মারমা।

বিষয় : খাগড়াছড়ি দীঘিনালা উপজেলা যৌথ বাহিনী ইউপিডিএফ

মন্তব্য করুন