সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটা থানার জুসখোলা এলাকা থেকে ১২ বছর বয়সী মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে সৎ বাবাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার সকালে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলা হাজতে পাঠানো হয়েছে।

ওই ব্যক্তির নাম রফিকুল ইসলাম (৩৮)। তিনি তালার সরুলিয়া ইউনিয়নের জুসখোলা গ্রামের তবারক সরদারের ছেলে। পেশায় একজন ইটভাটা শ্রমিক।

পাটকেলঘাটা থানার ওসি কাজী ওয়াহিদ মুর্শেদ জানান, ১২ বছর আগে রফিকুল ইসলামের সঙ্গে তার স্ত্রীর ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। পরে তিনি আবার বিয়ে করেন। সেই পক্ষের দু'টি কন্যা সন্তান রয়েছে। এক কন্যা পাবনাতে কাজ করেন। অপরজন ১২ বছর বসয়ী ছোট মেয়েটি ঢাকায় কাজ করে। সম্প্রতি সে বাড়িতে আসার পর তার সৎ বাবা তাকে বিভিন্ন সময় যৌন হয়রানি করেন।

তিনি আরও বলেন, গত ২১ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় মেয়েকে বাড়িতে একা পেয়ে সৎ বাবা তাকে ধর্ষণ করেন। পরে মেয়েটি এ ঘটনাটি তার মাকে জানালে তার মা বাদী হয়ে পাটকেলঘাটা থানায় স্বামীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন।