পেঁপে খুব সুস্বাদু এবং স্বাস্থ্যকর ফল। বেশিরভাগ মানুষ এটি পছন্দ করেন। এটি শুধু ত্বকই নয়, স্বাস্থ্যও ভালো রাখে। পেঁপে খেলে অনেক ধরনের রোগ নিরাময় হয়। তবে, পেঁপে খেলেও বেশিরভাগ মানুষই এর বীজ ফেলে দেন। কিন্তু অনেকেরই হয়তো জানা নেই ফলের মতো এর বীজও দারুণ উপকারী।

পেঁপের ছোট কালো বীজ খাওয়া যায়। এর ওপরে পাতলা একটি আস্তরণ থাকে। এটি সরিয়ে বীজগুলি খেতে পারেন। তবে সেটা শুকিয়ে নিলে ভালো হয়। পেঁপের বীজে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান থাকায় সীমিত পরিমাণে এই বীজ খেলে স্ট্যাফিলোকক্কাস, সালমোনেলা টাইফি, সিউডোমোনাস অ্যারুগিনোসা, কোলির মতো ব্যাকটেরিয়া এড়ানো যায়। পেঁপের বীজ খেলে যেসব স্বাস্থ্য উপকারিতা পাওয়া যায়-

ডায়াবেটিসে উপকারী : ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীদের জন্য পেঁপে খুব উপকারী। এতে থাকা ফাইবার হজম ভালো করে। সেই সঙ্গে রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখে।

ত্বকের জন্য কার্যকর : পেঁপের বীজ ত্বকের যে কোনও সমস্যা দূর করতে খুব উপকারী। এতে থাকা অ্যান্টি-এজিং বৈশিষ্ট্য ত্বকে স্থিতিস্থাপকতা বজায় রাখতে সহায়তা করে।

প্রদাহ হ্রাস করে
: পেঁপের বীজ প্রদাহ হ্রাসে দারুন কার্যকর। এই ফলের বীজ ভিটামিন সি, ফ্ল্যাভোনয়েডস এবং পলিফেনলগুলির মতো যৌগগুলিতে সমৃদ্ধ। এই সব যৌগ বাতজনিত প্রদাহ হ্রাস করতে অত্যন্ত কার্যকর।

হৃৎপিণ্ড সুস্থ রাখে : পেঁপের বীজ প্যানাসিয়া হৃৎপিণ্ডের সাথে সম্পর্কিত যে কোনও রোগ নিরাময় করতে সাহায্য করে। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ এই বীজ দেহকে ফ্রি র‌্যাডিক্যালের ক্ষতি থেকে রক্ষা করে। শুধু তাই নয়, নিয়মিত এই বীজ খেলে রক্তচাপ ও কোলেস্টেরল স্তর নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে : নিয়মিত পেঁপের বীজ খেলে রক্তচাপ ও কোলেস্টেরল স্তর নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।

ক্যান্সার প্রতিরোধ : পেঁপের বীজ শরীরকে বিভিন্ন ধরণের ক্যান্সার থেকে রক্ষা করতে পারে। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্যান্সার প্রতিরোধে ভূমিকা রাখে।

মেদ ঝরাতে সহায়তা করে
: পর্যাপ্ত ফাইবার থাকার কারণে পেঁপের বীজ মেদ ঝরাতে বেশ কার্যকরী। এটি খেলে পেট দীর্ঘক্ষণ ভরা থাকে। ফলে বেশি ক্ষুধা অনুভূত হয় না। সেই সঙ্গে বিপাক নিয়ন্ত্রণেও সহায়তা করে এই বীজ। ফলে শরীরের বাড়তি মেদ নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

মন্তব্য করুন