নারীর যৌনস্বাস্থ্য সুরক্ষা বিষয়ে ভিন্ন আঙ্গিকে ফরিদপুরে কাজ শুরু করেছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নন্দিতা সুরক্ষা। স্থানীয় চারটি এলাকাকে প্রথমিকভাবে কাজ করার জন্য বেছে নিয়েছে তারা।

শুক্রবার দুপুর থেকে ফরিদপুর সদর উপজেলার বিলমাহমুদপুর এলাকায় দরিদ্র কিশোরীদের মাঝে রিইউজএবল স্যানেটারী ন্যাপকিন বিতরণের মধ্য দিয়ে মাঠ পর্যায়ের কার্যক্রম শুরু করেছেন তারা। প্রকল্পের আওতাভুক্ত এলাকাগুলোতে কিশোরীদের মধ্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণের সাথে সাথে ঋতুস্রাব কালীন সচেতনতা , নারী ও শিশুর প্রতি যৌন হয়রানী, অনিরাপদ স্পর্শ ও সহিংসতা প্রতিরোধ , শারীরিক গঠন নিয়ে কটূক্তির প্রভাব এবং বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করা হবে; একই সাথে নারীদের আত্মরক্ষা বিষয়ক ধারণা দেওয়া হবে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জেলা প্রসাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলার ৩০০ নারীর মাসিককালীন সুরক্ষা নিশ্চিত করণে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণ-২০২১ ও জনসচেতনতামূলক সেমিনার নামে এই প্রকল্পটি উদ্ভোধন করা হয়। সেখানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক অতুল সরকার। সভায় নন্দিতা সুরক্ষার সভাপতি তাহিয়াতুল জান্নাত রেমির সভাপতিত্বে বক্তব্য বাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) দীপক কুমার রায়, সমাজসেবা অধিদফতর ফরিদপুরের উপপরিচালক আলী আহসান, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাশউদা হোসেন, ব্লাস্ট ফরিদপুরের সমন্বয়কারী অ্যাডভোকেট শিপ্রা গোস্বামী, নারী নেত্রী আসমা আক্তার মুক্তা, বিএফএফ এর নির্বাহী পরিচালক ফজলুল হাদী সাব্বির, সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের সহযোগী অধ্যাপক রেজভী জামান ও জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. তানসিভ জুবায়ের নাদিম।

এর আগে ১৬ মার্চ  বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ্যান্ড সার্ভিসেস  ট্রাস্ট (ব্লাস্ট) এবং নন্দিতা সুরক্ষার মাঝে সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষরিত হয়। নারী এবং কন্যা শিশুর প্রতি যৌন সহিংসতা প্রতিরোধে কাজ করছে নন্দিতা সুরক্ষা আর ব্লাস্ট কাজ করছে নারী নির্যাতন প্রতিরোধে। দুই সংগঠন মিলে একত্রে ফরিদপুর জেলার নারী শিশুদের সুরক্ষিত রাখতে কাজ করার অঙ্গিকার নিয়ে এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। তাদের সাথে মিডিয়া পার্টনার হিসেবে রয়েছে দৈনিক সমকাল।