অনেকেই ইউরিক অ্যাসিডের সমস্যায় ভোগে। এ সমস্যা বাড়লে কেউ কেউ ব্যথায় পা ফেলতে পারেন না। বিশেষজ্ঞদের মতে, যারা প্রত্যেকদিন প্রচুর পরিমাণে মাছ-মাংস খান, তাদের ইউরিক অ্যাসিড বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকি বেশি। অ্যালকোহল ও ঠান্ডা পানীয় নিয়ম করে খেলেও ইউরিক অ্যাসিড বাড়ে। স্বাভাবিকের থেকে বেশি ওজন হলেও ঝুঁকি থাকে বলে মনে করা হয়।

অনেকের ক্ষেত্রে এই সমস্যা কিছুটা বংশগত। আবার অনিয়ন্ত্রিত রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, হৃদযন্ত্রের সমস্যা, কিডনির অসুখ থাকলে ইউরিক অ্যাসিড বেড়ে যেতে পারে। শরীরে ইউরিক অ্যাসিডের উচ্চ মাত্রার উপস্থিতিতে গিঁটের ব্যথা, গেঁটে বাতের মতো একাধিক স্বাস্থ্য সমস্যা হতে পারে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে হাঁটুসহ বিভিন্ন অস্থিসন্ধিতে ইউরিক অ্যাসিড জমা হতে থাকে। এতে অস্থিসন্ধি ফুলে যায় এবং ব্যথা হতে থাকে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, যারা প্রায়ই ইউরিক অ্যাসিডের সমস্যায় ভোগেন তাদের কিছু বিষয় মেনে চলা উচিত। যেমন-

১. বিশেষজ্ঞদের মতে, কৃত্রিম রং, চিনি বা কর্ন সিরাপ দেওয়া খাবার একেবারে বন্ধ করা উচিত। কোলা জাতীয় পানীয়, রং দেওয়া জেলি, জ্যাম, সিরাপ, বাজারের প্যাকেটজাত ফলের জুস খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। এছাড়া স্মোকড ও টিনজাত খাবারও পরিহার করা উচিত।

২. সাধারণত পালং শাক, পুঁই শাক, বিনস, বরবটি, মুসুর ডাল খেলে ইউরিক অ্যাসিডের সমস্যা বেড়ে যায়। এছাড়া সামুদ্রিক মাছ খেলেও অনেকের ইউরিক অ্যাসিড বাড়ে। এ কারণে এসব খাবার থেকে দূরে থাকতে হবে।

৩. বিশেষজ্ঞদের মতে, যাদের ইউরিক অ্যাসিডের সমস্যা আছে তারা মাছ বা মুরগির মাংস খেলে মাছের মাথা, মুরগির কলিজা খাওয়া থেকে বিরত থাকবেন।

৪. রক্তে ইউরিক অ্যাসিডের পরিমাণ অনেক বেড়ে গেলে মূত্রনালীতে ইউরিক অ্যাসিড জমে পাথর তৈরি হওয়ার ঝুঁকি থাকে। এ কারণে দিনে তিন থেকে চার লিটার পানি পান করা উচিত।

৫. ফ্যাট ফ্রি দুধ খাওয়া শুরু করুন। এছাড়াও পিনাট বাটার, ফল, শাকসবজি বেশি পরিমাণে খান। শস্যদানা, রুটি, আলু খেতে পারেন। দুধ ও চিনি ছাড়া ব্ল্যাক কফি খাওয়ার অভ্যাস করুন।

৬. নিয়মিত ব্যায়াম, হাঁটা, সাঁতার যে কোনও একটা প্রতিদিন রুটিনে রাখুন। ওজন কোনও ভাবেই বাড়তে দেবেন না। রক্তচাপ, কোলেস্টেরল, হৃদরোগ থাকলে ইউরিক অ্যাসিড বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ফলে সবসময় নিজের শরীরের প্রতি যত্নশীল হোন।

৭. খাদ্য তালিকায় ভিটামিন সি রাখুন। এজন্য লেবু ও বিভিন্ন ফলমূল খেতে পারেন। মনে রাখবেন, ভিটামিন সি ইউরিক অ্যাসিড নিয়ন্ত্রণে দারুন কাজ করে।