ঢাকার ধামরাইয়ে আলামিন (২৩) নামে এক অটোরিকশা চালককে প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ধামরাই পৌরসভার মাধববাড়ি ব্রীজের দক্ষিণ পাশে একটি চায়ের দোকানের সামনে এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জাহাঙ্গীর আলম নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত আলামিন ধামরাই পৌরসভার কায়েতপাড়া মহল্লার বজলুর রহমানের ছেলে।

স্থানীয়দের বরাতে পুলিশ জানায়, আলামিনের আটোরিকশার সঙ্গে ধামরাই পৌরসভার গোয়ারীপাড়া মহল্লার আল মাহফুজের মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয় শুক্রবার সকালে। ওই সময় উভয়ের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। পরবর্তীতে সকাল সাড়ে এগারটার দিকে মাধববাড়ি ব্রীজের দক্ষিণ পাশের ঢালে একটি চায়ের দোকানের সামনে আলামিনের পেটে ও বুকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় মাহফুজ। এতে ঘটনাস্থলেই আলামিন নিহত হন। তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।

এ বিষয়ে ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ আতিকুর রহমান বলেন, অটোরিকশা ও মোটরসাইকেলের সংঘর্ষের ঘটনায় অটোরিকশা চালক আলামিনকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা অভিযোগ উঠেছে আল মাহফুজ নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় একজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।