রাজশাহীর পবা উপজেলার হারুপুরে সাকিব হোসেন (১৮) নামের এক যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার সকাল ৯টার দিকে তার শোবারঘর থেকে লাশ উদ্ধার করে কাশিয়াডাঙ্গা থানা পুলিশ। 

নিহত সাকিব হোসেনের বাবার নাম মো. হেলেন। তিনি পেশায় ট্রাক ড্রাইভার। ঘটনার রাতে হেলেন ঢাকায় ছিলেন তিনি। 

পুলিশের ধারণা, সাকিবের ছোটভাই শিমুল হোসেন (১৬) এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত।

এ বিষয়ে কাশিয়াডাঙ্গার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মাসুদ পারভেজ বলেন, সাকিবের মা তার নানী বাড়িতে ও বাবা ঢাকায় ছিলেন। শুক্রবার রাতে শাকিল ও সাকিব বাড়িতে ছিলেন। সকালে প্রতিবেশীরা ঘরে গিয়ে সাকিবের গলাকাটা লাশ দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। 

ওসি আরও জানান, ঘটনার পর থেকে সাকিবের ভাই শাকিলকে পাওয়া যাচ্ছে না। ধারণা করা হচ্ছে, তিনি এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। তাই পালিয়েছেন।