বাগেরহাটের মোংলা বন্দরে পশুর নদে কয়লা নিয়ে ডুবে গেছে একটি জাহাজ।

মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পশুর নদের বানিয়াশান্তা কাটাখালী এলাকায় ৫শ’ মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে এমভি ইফসিহা মাহী নামের ওই লাইটার জাহাজটি ডুবে যায়।

ক্রিক বয়ার নোঙ্গর উপড়ে স্রোতের টানে অন্য একটি লাইটারের সঙ্গে ধাক্কা লেগে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় ডুবে যাওয়া লাইটারের মাস্টারসহ ১০ নাবিক সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হন।

মোংলা লাইটার শ্রমিক ইউনিয়ন ও প্রতাক্ষদর্শী সূত্র জানায়, বন্দর চ্যানেলের হারবাড়িয়ায় অবস্থানরত একটি বিদেশি মাদার ভ্যাসেল(বড় জাহাজ) থেকে ৫শ’ মেট্রিক টন কয়লা বোঝাই করে খুলনার উদ্দেশে রওনা হয়ে মোংলার ক্রিক বয়ায় যাত্রা বিরতি করে লাইটার জাহাজ এমভি ইফসিহা মাহী। ওই বয়া এলাকায় আরও ১৫-১৬টি পণ্য বোঝাই লাইটার জাহাজ অবস্থান করছিল।

দুপুরে হঠাৎ স্রোতের টানে বয়াটির নোঙ্গর অবস্থানচ্যুত হলে পণ্যবাহী লাইটারগুলো দ্রুত সরে যাওয়ার চেষ্টা করলে এমভি ইফসিহা মাহী নামের লাইটারটি অন্য একটি লাইটারের সঙ্গে আঘাত লেগে তলা ফেটে যায়। এ সময় মাস্টার জাহাজটি চালিয়ে তীরে ভেড়াতেই কাটাখালী নামক এলাকায় নদীর চরে ডুবে যায়।

ডুবে যাওয়া লাইটারের মাষ্টার মো. শাহআলম জানান, দুর্ঘটনা কবলিত এ জাহাজটি এখন পুরোপুরি নিমজ্জিত থাকলেও ভাটার সময় জেগে উঠবে। এ  বিষয়ে খুলনার দাকোপ থানায় সাধারণ ডায়েরির প্রক্রিয়া চলছে।

এর আগে ২৭ ফেব্রুয়ারি রাতে মোংলা পশুর নদে ৭শ’ মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে ডুবে যায় এমভি বিবি ১১৪৮ নামের একটি লাইটার জাহাজ।