সারাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আশঙ্কাজনক হারে বাড়ার কারণে রাঙামাটি ও খাগড়াছড়িতে সব ধরনের পর্যটন স্পট ও বিনোদন কেন্দ্র আগামী ১৪ দিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। একই সঙ্গে সব ধরনের সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

বুধবার রাঙামাটিতে জেলা প্রশাসনের এক জরুরি সভায় এবং খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসনের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে।

রাঙামাটি: রাঙামাটিতে জেলা প্রশাসনের জরুরি সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। এ সময় জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. মামুন, জেলা সিভিল সার্জন ডা. বিপাশ খীসা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ী সমিতির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় রাঙামাটির সব পর্যটন স্পট ও বিনোদন কেন্দ্র ১৪ দিনের জন্য বন্ধ ঘোষনাসহ সব ধরনের গণজমায়েত (সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় ইত্যাদি)  দুই সপ্তাহের জন্য বন্ধ; সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের আয়োজিত সভা, সেমিনার, প্রশিক্ষণ ও কর্মশালা অনলাইনে আয়োজন; রাত ৮টার মধ্যে ওষুধের দোকান ছাড়া সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ; সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখা; সব হোটেল ও রেস্তোরাঁয় ৫০ শতাংশের অধিক মানুষের প্রবেশ নিষিদ্ধসহ ২১ দফা সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

খাগড়াছড়ি: জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে পরবর্তী ১৪ দিন জেলার সব পর্যটন কেন্দ্রে পর্যটকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এদিকে উচ্চমাত্রার করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সারাদেশের মতো খাগড়াছড়িতে রাত ১০টার পর জরুরি সেবা ছাড়া অন্যসব কাজে নিয়োজিত ব্যক্তি ও পরিবহনের চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস জানান, স্বাস্থ্যবিধি পালনে জনগণকে সচেতন করতে প্রচারণার পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম চলছে।

বিষয় : পর্যটন স্পট বন্ধ রাঙামাটি খাগড়াছড়ি

মন্তব্য করুন