সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা ও লুটপাটের ঘটনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে মামলা করেছেন ঝুমন দাশ আপনের মা নিভা রানী দাশ। জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম কান্ত সিনহা মামলাটি আমলে নিয়ে ডিবি পুলিশের কাছে তদন্তের জন্য দিয়েছেন। 

মামলায় আসামি করা হয়েছে ৭২ জনকে। গত ১৬ মার্চ নিভা রানী দাশের ছেলে ঝুমন দাশ আপন মাওলানা মামুনুল হককে নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার জেরে দিরাই ও শাল্লার কয়েকটি গ্রামের মানুষ দারাইন বাজারে বিক্ষোভ করে। এ ঘটনায় গ্রামবাসী ঝুমনকে পুলিশে সোপর্দ করে। পরদিন কয়েকটি গ্রামের মানুষ সংঘবদ্ধ হয়ে নোয়াগাঁও গ্রামে হামলা ও লুটপাট চালায়। ওই দিন তারা গ্রামের ৮৫টি ঘরে লুটপাট ও ভাঙচুর করে।

বাদীর আইনজীবী দেবাংশ শেখর দাস বলেন, শাল্লা থানার পুলিশ মামলাটি না নেওয়ায় আমরা আদালতে দাখিল করেছি। আদালত বাদীর জবানবন্দি নিয়ে মামলাটি ডিবির ওসিকে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন।

মন্তব্য করুন