করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় এবার ৫০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার গড়ে তুলছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক)। নগরের লালদীঘি পাড়ের সিটি করপোরেশন লাইব্রেরি ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ভবনে এ আইসোলেশন সেন্টার গড়ে তোলা হবে বলে জানিয়েছেন সিটি মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী। 

আগামী ৬ এপ্রিল সেন্টারটির আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হবে।

শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সিটি মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, আইসোলেশন সেন্টারে রোগীরা বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা, ওষুধ ও অপিজেন সাপোর্ট পাবেন। রোগী পরিবহন ও স্থানান্তরে সার্বক্ষণিক অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস থাকবে।

জানা গেছে, চসিকের স্বাস্থ্য বিভাগের চিকিৎসক ডা. সুমন তালুকদারের তত্ত্বাবধানে আইসোলেশন সেন্টারটিতে পর্যাপ্ত চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা নিয়োজিত থাকবেন।

এর আগে গত বছরের জুনে নগরের আগ্রাবাদে সিটি কনভেনশন সেন্টারে ২৫০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার চালু করে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন। দুই মাসের মাথায় এটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এই আইসোলেশন সেন্টারটি ঘিরে ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল তখন। তদন্তে তার প্রমাণও পেয়েছিল তৎকালীন প্রশাসন।