সোনারগাঁয়ে রিসোর্টে হেফাজত নেতা মামুনুল হক আটক হওয়ার পর একটি অডিও রেকর্ড সমকালের হাতে আসে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও যা ভাইরাল হয়েছে। বলা হচ্ছে, এটি মামুনুল হক ও তার প্রথম স্ত্রীর মধ্যে কথোপকথন। ফোনে স্ত্রীর কাছে ঘটনার ব্যাখ্যা দেন তিনি। মামুনুল বলেন, 'ওই মহিলা যে ছিল সাথে, সে হইল আমগোর শহিদুল ভাইয়ের ওয়াইফ, বুচ্ছো?' এ ব্যাপারে কেউ প্রশ্ন করলে কী উত্তর দিতে হবে- এটাও সহধর্মিণীকে বাতলে দিয়ে তিনি বলেন, 'তোমাকে কেউ জিজ্ঞেস করলে তুমি বইল যে হ্যাঁ, আমি সব জানি। এ রকম কিছু একটা বইল...।'

অডিও রেকর্ডের কথোপকথন-

মামুনুলের বউ: সালামালাইকুম।

মামুনুল: ওয়ালাইকুমুস সালাম ওয়া রহমাতুল্লাহ। পুরো বিষয়টা তোমাকে আমি সামনে এসে বলব। ওই মহিলা যে ছিল সাথে, সে হইল আমগোর শহিদুল ভাইয়ের ওয়াইফ, বুচ্ছো? ওইটা নিয়ে একটা মানে ওখানে অবস্থা এ রকম তৈরি হয়ে গেছে যে এই কথা বলা ছাড়া... ওখানে মানে ওরা ই করে ফেলছিল আমাকে... বুচ্ছো?

মামুনুলের বউ: আচ্ছা, বাসায় আসেন, তার পরে কথা হবে। যা বলার বইলেন।

মামুনুল: না না, বলুম তো... তুমি বিষয়টা মানে অন্যান্য কথা অন্যদের বলতে হইব, পরিস্থিতিটা এ রকম হয়ে গেছে। এখন এইজন্য তুমি আবার মাঝখান দিয়ে অন্য কিছু মনে কইরো না। তোমাকে কেউ জিজ্ঞেস করলে তুমি বইল যে হ্যাঁ, আমি সব জানি। এ রকম কিছু একটা বইল...।

মামুনুলের বউ: ঠিকাছে।

মামুনুল: আচ্ছা, আসালামালাইকুম।

ঘটনাস্থলের কথোপকথন: রিসোর্টে থাকা অবস্থায় স্থানীয়দের প্রশ্নের মুখোমুখি হন মামুনুল হক। সেখানকার একটি অডিও রেকর্ডও সমকালের হাতে এসেছে। রিসোর্টে যে নারীকে নিয়ে যান, তাকে মামুনুল 'দ্বিতীয় স্ত্রী' দাবি করলেও অনেক প্রশ্ন উঠেছে। ওই নারী ঘটনাস্থলে দাবি করেন, তার শ্বশুরের নাম জাহিদুল ইসলাম। তবে মাওলানা মামুনুলের বাবার নাম আজিজুল হক। তাহলে কীভাবে মামুনুলের স্ত্রী হলেন তিনি? এ ছাড়া প্রথম স্ত্রীর অনুমতি নিয়ে তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করেছিলেন। তিনি হঠাৎ রিসোর্টে গেলেন কেন?

প্রশ্ন: আপনার কী হয়?

মামুনুল: আমার ওয়াইফ। আমি তাকে বিয়ে করেছি। শরিয়তসম্মতভাবে বিয়ে করেছি।

প্রশ্ন: কয় বছর আগে বিয়ে করেছেন?

মামুনুল: দুই বছর আগে।

প্রশ্ন: দুই বছর আগে বিয়ে করলে সময় কাটাতে রয়্যাল রিসোর্টে কেন আসছেন?

মামুনুল: আমি বেড়াইতে আসছি।

প্রশ্ন: ওনার বাড়ি কই?

মামুনুল: কিছুই বলব না।

প্রশ্ন: এখানে কোথায় আসছেন?

মামুনুল: আমি সোনারগাঁয়ে বেড়াতে আসছিলাম।

প্রশ্ন: আপনি যে এখানে আসছিলেন, সেটা ওলামায়ে কেরাম কেউ জানে?

মামুনুল: না, আমি কারও সঙ্গে দেখা করে আসি নাই। আমি যেখানেই যাই, মানুষজন ভিড় করে। সে জন্য একটু আলাদাভাবে আসছি।

প্রশ্ন: আপনি দেশের এই পরিস্থিতির মধ্যে এখানে কেন?

মামুনুল: কথা নেই।

প্রশ্ন: আপনার ওয়াইফ যদি নিয়া আসেন, আপনি বুক ফুলায়া কথা বলবেন। আপনি কেন পালায়া যাইতে চাইছিলেন?

মামুনুল: (চুপ থেকে) আপনারা সবাই দুর্ব্যবহার করতেছেন।

প্রশ্ন: যে মেয়েটাকে আপনার সঙ্গে দেখলাম, সে তো আপনার বয়সের সঙ্গে ম্যাচ খায় না।

মামুনুল: (বিয়ের) প্রমাণ আছে, প্রমাণ আছে বললাম তো।