বরিশালের হিজলা উপজেলায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে এক নারীকে তার মায়ের সামনে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। মেয়েকে রক্ষা করতে গিয়ে আহত হয়েছেন মা। রোববার রাতে উপজেলার শ্রীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম রেহেনা বেগম (৪৫)।

রেহেনা ওই গ্রামের মৃত আমির হোসেনের স্ত্রী। তিনি দুই সন্তানের জননী ছিলেন। কয়েক বছর আগে স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে সন্তানদের নিয়ে বাবার বাড়িতে থাকতেন রেহেনা।

স্থানীয়রা জানান, রেহেনার পৈতৃক সম্পত্তি নিয়ে প্রতিবেশী তামিম মল্লিকদের সঙ্গে বিরোধ চলছিল। কয়েকদিন আগে তামিম মল্লিক ওই জমিতে গেলে রেহেনার সঙ্গে বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। তখন তামিম তাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়েছিল। 

রোববার সন্ধ্যায় ধারালো অস্ত্র নিয়ে রেহেনার ওপর হামলা করে তামিম। মেয়েকে রক্ষার জন্য এগিয়ে আসেন মা নুরজাহান বেগম (৬৫)। এ সময় মা-মেয়েকে কুপিয়ে জখম করে তামিম পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেপে নিয়ে গেলে চিকিৎসক রেহেনাকে মৃত ঘোষণা করেন। নুরজাহানকে বরিশাল শেরেবাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

হিজলা থানার ওসি অসীম কুমার সিকদার জানান, এ ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত তামিম মল্লিকসহ তিনজনের নাম উল্লেখ করে থানায় হত্যা মামলা হয়েছে। সোমবার দুপুর পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। তামিম ওই গ্রামের মৃত রহম মল্লিকের ছেলে।