খুলনায় সরকারি অনুদান না পেয়ে শিল্পকলা একাডেমিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন বঞ্চিত কবি-সাহিত্যিক, আবৃত্তি শিল্পীসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মীরা। রোববার সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত জেলা সাংস্কৃতিক কর্মকর্তার কক্ষে অবস্থান নিয়ে ‘অনুদান বঞ্চনার’ প্রতিবাদ জানান তারা।

এ সময় সাংস্কৃতিক কর্মকর্তার পক্ষ থেকে বঞ্চিত সবার নামের তালিকা জমা দেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়।

এর আগে গত ২২ এপ্রিল ২৯৭ জন কর্মহীন শিল্পী, কলাকুশলীর মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে মোট ২৯ লাখ ৭০ হাজার টাকা অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়।

এ প্রসঙ্গে জেলা সাংস্কৃতিক কর্মকর্তা সুজিত কুমার সাহা সমকালকে বলেন, লকডাউনে অফিস বন্ধ ছিল। তখন কর্মহীন হয়ে পড়া শিল্পী ও কলাকুশলীদের তালিকা চেয়ে অফিশিয়াল ফেসবুজ পেজ ও ওয়েবসাইটে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রধানদের নিয়ে সভা করে তথ্যটি সবাইকে জানিয়ে কর্মহীনদের আবেদন করার অনুরোধও জানানো হয়। বারবার বলার পরও আবেদন করেন মাত্র ৩০১ জন। যাদের মধ্যে ২৯৭ জন অনুদান পেয়েছেন।

সাংস্কৃতিক কর্মকর্তা বলেন, এটি দুস্থ শিল্পী ভাতা নয়। প্রশিক্ষক, শিল্পী, কলাকুশলীদের মধ্যে যারা দৈনিক আয়ের ওপর নির্ভরশীল, লকডাউনে যাদের কাজ বন্ধ রয়েছে, শুধু তাদেরই অনুদান দেওয়া হচ্ছে। কবি-সাহিত্যিকরা এই পর্যায়ে পড়েন না। তারপরও সবাইকে আবেদন করতে বলা হয়েছে। সবার তালিকা ঢাকায় পাঠানো হবে।

রোববার সকালে শিল্পকলা একাডেমিতে গিয়ে দেখা যায়, প্রধান ফটকের সামনে তালিকাভুক্তদের চেক দেওয়া হচ্ছে। অন্যদিকে অন্যান্য সাংস্কৃতিক কর্মীরা চত্বরে অবস্থান নিয়েছেন। পরে তারা জেলা সাংস্কৃতিক কর্মকর্তার কক্ষে অবস্থান নিয়ে ক্ষোভ জানান।

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক পরিষদের জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক লুৎফুন্নাহার পলাশী জানান, পত্রিকায় ছবিসহ সংবাদ দেখে আমরা অনুদানের বিষয়টি জানতে পারি। অনেকেই এ তথ্য জানতেন না। আমাদের সংগঠনের কেউ এই অনুদান পায়নি।

খুলনা সাহিত্যিক সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা স ম হাফিজুল ইসলাম বলেন, আমার সংগঠনের ১৮০ জন সদস্যের কেউই অনুদান পাননি। আবৃত্তি সংগঠন লাল সবুজ একাডেমির ইকবাল হাসান তুহিন অভিযোগ করেন, ৩০ বছর সাংস্কৃতিক অঙ্গনে কাজ করছি। যারা অনুদান পেয়েছেন, তাদের অনেককেই চিনি না। আমার সংগঠনে ১৫ জন আবৃত্তিশিল্পী আছেন। তাদের কেউই অনুদান পাননি।

আবৃত্তিশিল্পী বাপ্পী খান বলেন, অনুদানের বিষয়টি জানি না। পত্রিকার মাধ্যমে জানতে পেরে শিল্পীরা একাডেমিতে এসে প্রতিবাদী অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন।