ফেনীর সোনাগাজীতে ভূমি নিয়ে বিরোধের জেরে স্কুলছাত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে। সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের সুজাপুর গ্রামের ফরাজি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহত বিবি মরিয়ম ওই বাড়ির রফিকুল ইসলামের মেয়ে ও সোনাগাজী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বোন বিবি হাজেরা বাদী হয়ে মঙ্গলবার অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য আব্দুল হক খোকনকে প্রধান করে হোসেন আহম্মদ, খুরশিদ আলম, ওজিবা খাতুন ও হাসিনা বেগমের নামে সোনাগাজী মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযুক্তরা সবাই সুজাপুর গ্রামের ফরাজি বাড়ির বাসিন্দা।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিবি মরিয়ম বলে, আব্দুল হক ও তার লোকজনের সঙ্গে আমাদের পরিবারের ভূমি বিরোধ রয়েছে। তারা বিভিন্ন সময় দেখা হলেই আমাকে গালাগাল ও মোবাইল ফোনে কুরুচিপূর্ণ আচরণ করে আসছিল। এ নিয়ে আমার পরিবারের পক্ষ থেকে এলাকার সমাজপতিদের কাছে বিচার দিলে তারা (আব্দুল হক) ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন।

বিবি মরিয়ম আরও বলে, সোমবার সন্ধ্যায় ইফতার শেষে নিজেদের বসতঘরে বসে ছিলাম। এ সময় কোনো ধরনের উস্কানি ছাড়াই 'কেন বিচার দিয়েছি' বলে আব্দুল হক খোকন ঘরে প্রবেশ করে আমাকে টেনে-হিঁচড়ে ঘরের বাইরে নিয়ে যান। তিনি আমার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগানোর চেষ্টা করেন। তার সঙ্গে থাকা অন্যরা আমাকে কিল-ঘুসি মেরে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করেন। আমার চিৎকারে বাড়ির লোকজন এগিয়ে এলে তার সটকে পড়েন।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে আব্দুল হকের মোবাইলে ফোন দিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। তাদের বাড়িতে গিয়েও কাউকে পাওয়া যায়নি। সোনাগাজী মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আনোয়ার হোসেন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ধারণা করছি, পারিবারিক বিরোধের জেরে ঘটনাটি ঘটেছে।