ঢাকা সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪

কুমিল্লায় ‘দলীয় স্বতন্ত্র’ প্রার্থীদের ছড়াছড়ি 

কুমিল্লায় ‘দলীয় স্বতন্ত্র’ প্রার্থীদের ছড়াছড়ি 

ফাইল ছবি

কুমিল্লা প্রতিনিধি

প্রকাশ: ০১ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১০:৩৮ | আপডেট: ০১ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১২:১৭

কুমিল্লার ১১টি সংসদীয় আসনে নৌকার মনোনয়নে বড় কোন চমক ছিল না। দুটি আসন ছাড়া অপর ৯টি আসনেই দলীয় বর্তমান এমপিরাই মনোনয়ন পেয়েছেন। কিন্তু মনোনয়ন জমা দেয়ার শেষ দিনে বৃহস্পতিবার প্রায় সব আসনেই দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা নেতারা নৌকা ‘ঠেকাতে’ স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। তবে অর্থমন্ত্রী ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর আসনে দলের কেউ স্বতন্ত্র প্রার্থী হননি বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। দলের স্বতন্ত্র প্রার্থীদের অভিমত তাঁরা কর্মী-সমর্থকদের চাপের মুখে প্রার্থী হয়েছেন। অপর দিকে নৌকা মনোনয়ন পাওয়া বেশ কয়েকজন প্রার্থী বলেছেন ‘ নৌকার বিজয়ের স্বার্থে স্বতন্ত্র প্রার্থীরাও নৌকার পক্ষে চলে আসবে।’ 

কুমিল্লা-১ (দাউদকান্দি-তিতাস): এ আসনে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন দলের কেন্দ্রীয় নেতা ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর। এ আসনের বর্তমান এমপি মোহাম্মদ সুবিদ আলী ভূঁইয়া কিংবা তাঁর পরিবার থেকে নির্বাচন করার কথা ছিল। এ বিষয়ে এমপি পুত্র দাউদকান্দি উপজেলার চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সুমন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর সাথে আমার বাবার কথা হয়েছে। তিনি আমাদের স্বতন্ত্র পদে নির্বাচন না করার নির্দেশে দিয়েছেন, তাই নেত্রীর নির্দেশের প্রেক্ষিতে আমরা স্বতন্ত্র নির্বাচন থেকে বিরত রয়েছি। আমরা নেত্রী এবং নৌকার বাইরে না।’ তবে এ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য নাঈম হাসান। 

কুমিল্লা-২ (হোমনা-মেঘনা): এ আসনে দলের মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান এমপি সেলিমা আহমাদ মেরি। মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন হোমনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ আবদুল মজিদ এবং মেঘনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শফিকুল আলম। 

কুমিল্লা-৩ (মুরাদনগর): এ আসনে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন দুইবারের এমপি ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন। স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার। 

কুমিল্লা-৪  (দেবিদ্বার): এখানে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন দুই বারের এমপি রাজী মোহাম্মদ ফখরুল।  স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন সদ্য পদত্যাগী উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। এছাড়াও স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন শেখ রাসেল ফাউন্ডেশন ইউএসএ শাখার সভাপতি ডা. ফেরদৌস আহমেদ খন্দকার। আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের চাপে পড়ে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন, তিনি বিজয় হলে তো আওয়ামী লীগেরই বিজয়।’ এমপি রাজী ফখরুল তিনি বলেন, ‘নৌকা বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার প্রতিক। আশা করি যারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন তারাও নেত্রীর প্রতি সন্মান জানিয়ে নৌকার বিজয়ে কাজ করবেন।’  

কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া): এ আসনে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন অ্যাডভোকেট আবুল হাশেম খান। নৌকার মনোনয়ন না পেয়ে হাফ ডজন দলীয় নেতা স্বতন্ত্র প্রার্থী  হয়েছেন। এর মধ্যে অন্যতম কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন স্বপন।  

কুমিল্লা-৬ (আদর্শ সদর ও সিটি করপোরেশন): এ আসনে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান এমপি হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। তিনি মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি। মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন আঞ্জুম সুলতানা সীমা। তিনি সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি এবং মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি ও বর্তমান সদস্য।

কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা): নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত। মনোনয়ন না পেয়ে ৫ বারের প্রয়াত এমপি অধ্যাপক আলী আশরাফের ছেলে মুনতাকিম আশরাফ টিটু স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন। তিনি চান্দিনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। টিটু বলেন, ‘উপজেলা আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের কেউই এমপি প্রাণ গোপালের সাথে নেই। তাই দলের নেতাকর্মীদের অনুরোধে তিনি প্রার্থী হয়েছেন এবং সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তিনি বিজয়ে শতভাগ আশাবাদী।’ 

কুমিল্লা-৮ (বরুড়া): এ আসনে বর্তমান এমপি নাসিমুল আলম চৌধুরী নজরুল নৌকার মনোনয়ন না পেয়ে স্ত্রী তাহমিনা চৌধুরীসহ স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন। নৌকা পেয়েছেন শিল্পপতি আবু জাফর মো. শফিউদ্দিন শামীম। তিনি কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি। শামীম বলেন, ‘বরুড়ার আওয়ামী লীগ নৌকার বিজয়ের জন্য ঐক্যবদ্ধ। বর্তমান এমপি নাসিমুল আলম চৌধুরী নৌকার মনোনয়নে দুইবার এমপি হয়েছেন, তাই আমার বিশ্বাস দলের সভানেত্রীর প্রতি সম্মান জানিয়ে তিনিও নৌকার বিজয়ের জন্য একসাথে মাঠে কাজ করবেন।’ 

কুমিল্লা-৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ): এ আসনে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন। এখানে দলের কোন নেতা স্বতন্ত্র প্রার্থী হননি। তবে জাপা, জাকের পার্টি ও তরিকত ফেডারেশনসহ মোট ৯ প্রার্থী রয়েছেন।   

কুমিল্লা-১০ (সদর দক্ষিণ-নাঙ্গলকোট ও লালমাই) : এ আসনে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এ আসনেও দলের কেউ প্রার্থী হননি। তবে একজন স্বতন্ত্র, তৃণমূল বিএনপিসহ মোট ৭ প্রার্থী রয়েছেন।  

কুমিল্লা-১১ (চৌদ্দগ্রাম): এ আসনে সাবেক রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক মুজিব এমপি নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন। তিনি কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। নৌকার মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান। 

কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রোশন আলী মাস্টার সমকালকে বলেন, উত্তর জেলার ৫টি সংসদীয় আসনেই মনোনয়ন না পেয়ে দলের অনেকেই প্রার্থী হয়েছেন, ‘বিষয়টি কেন্দ্রকে অবগত করা হচ্ছে, আশা করি নৌকার বিজয়ের স্বার্থে আমরা একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছতে পারবো।’  

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুল হক এমপি বলেন, ‘যারা দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ, তাঁরা কখনো দলের সিদ্ধান্তের বাইরে যেতে পারে না। তাই দক্ষিণ জেলার যেসব সংসদীয় আসনে দলের নেতারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন আশা করি তাঁরা দলের সভানেত্রীর প্রতি আস্থা ও সম্মান দেখিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করবেন।’ 

আরও পড়ুন

×