মাদারীপুরের শিবচর উপজেলায় পদ্মা নদীতে স্পিডবোটের সঙ্গে বালুবোঝাই বাল্কহেডের সংঘর্ষে ২৬ প্রাণহানির ঘটনায় বাংলাবাজার ঘাটের ইজারাদার, বোটের মালিক-চালকসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। 

সোমবার রাতে শিবচর থানায় মামলাটি করেন নৌ-পুলিশের এসআই লোকমান হোসেন। মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে আহত বোটচালককে। 

সোমবার সকাল ৭টার দিকে বাংলাবাজার ফেরিঘাট সংলগ্ন কাঁঠালবাড়ি ঘাট এলাকায় পদ্মা নদীতে স্পিডবোটের সঙ্গে বালুবোঝাই বাল্কহেডের সংঘর্ষ হয়। এতে স্পিডবোটটি উল্টে যায়। সেখান থেকে একে একে উদ্ধার করা হয় শিশুসহ ২৬ জনের মরদেহ। জীবিত উদ্ধার করা হয় স্পিডবোটের চালকসহ পাঁচজনকে।

শিবচর থানার ওসি মিরাজ হোসেন জানান, দুঘর্টনায় ঘাটের ইজারাদার শাহ-আলম খান, বোটের মালিক চান্দু মোল্লা, রেজাউল হক ও চালক শাহ-আলমের নাম উল্লেক করে আরো অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে ১০ থেকে ১২ জনকে। আহত চালক শাহ আলমকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তাকে মামলায় আটক দেখিয়েছে পুলিশ। এদিকে সোমবার রাতেই ২৬টি মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

মন্তব্য করুন