সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে সিকন্দর আলী (৪০) নামের এক অটোরিকশা চালকের গলাকাটা মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার সকালে উপজেলার আধুখালি হাওর থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়। নিহত সিকন্দর আলী উপজেলার সাচনাবাজার ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের আব্দুর রউফের ছেলে।  

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইফতারের পর সিকন্দর আলী অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন। রাত ১২ টায় তার স্ত্রী রফিনা বেগম স্বামীর মোবাইলে ফোন দিলে তিনি যাত্রী রেখে বাড়ি ফিরবেন বলে জানান। কিন্তু কয়েক ঘন্টা যাবার পরও সিকন্দর না ফেরায় আবারও মোবাইলে ফোন দিলে সেটি বন্ধ পান তার স্ত্রী। সকালে স্বজনরা ও এলাকাবাসী সিকন্দরকে খোঁজাখুজি শুরু করেন। এক পর্যায়ে আধুখালি হাওরে তার মৃতদেহ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে। পরে সড়কের পাশ থেকে সিকন্দর আলীর অটোরিকশাটিও উদ্ধার করা হয়।

জামালগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, অটোরিকশা চালকের গলাকাটা মরদেহ হাওর থেকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তার খুনের রহস্য উদ্ধারে কাজ করছে পুলিশ।


মন্তব্য করুন