ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে ১৪ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণ ও ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার নির্যাতিত মেয়েটির মা মামলাটি দায়ের করেন।

অভিযুক্তরা হলেন- উপজেলার কসবা নোয়াগাও গ্রামের মিন্টু মিয়ার ছেলে সাইফুল(২৭) ,আজিজুল হকের ছেলে খোকন (৩২) এবং হরিয়াবহ গ্রামের বিডিআর হাসেমের ছেলে শামিম(৩৬)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাতে ওই কিশোরীকে অভিযুক্ত তিনজন তুলে নিয়ে যান। এদের মধ্যে সাইফুল মেয়েটি ধর্ষণ করেন। পরে অন্য দুইজন মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে ওই কিশোরী সেখান থেকে দৌড়ে পালাতে যান। পরে অভিযুক্ত দুইজন তাকে ধরে মোটরসাইকেল যোগে অন্য জায়গায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় মেয়েটির চিৎকারে উপজেলার গোসাইস্থল ক্যাম্পের বিজিবির সদস্যরা তাদের গতিরোধ করলে দুই অভিযুক্ত ওই কিশোরী ও মোটরসাইকেল ফেলে পালিয়ে যান। রাতেই মোটরসাইকেলসহ মেয়েটিকে স্থানীয় এক মেম্বারের কাছে সোপর্দ করে বিজিরি সদস্যরা।

কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) মো.আলমগীর ভুইয়া জানান, ভিকটিমকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দি নেওয়া হবে।