বগুড়ার গাবতলীতে প্রভাবশালী এক ব্যক্তি রাস্তা কেটে পুকুর খনন করায় এলাকার ৪০টি পরিবারের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়েছে। তারা একপ্রকার অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন। পুকুর খনন বন্ধে প্রশাসনের কাছে আবেদনও করেছেন ভুক্তভোগীরা।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, উপজেলার নেপালতলী ইউনিয়নের জাতহলিদা দক্ষিণ খাঁ পাড়ার কাঁচা রাস্তাটি দিয়ে আশপাশের ৪০টি পরিবারের লোকজনের যাতায়াত। কিন্তু আব্দুল মোমিন রাস্তাটি নিজের দাবি করে সেটি কেটে পুকুর খনন করছেন। ফলে খাঁ পাড়া এলাকার ৪০টি পরিবারের চলাচলের পথ প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। এ ছাড়া রাস্তা কেটে পুকুর করায় আশপাশের ফসলি জমিও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

এলাকাবাসীর দাবি, রাস্তা সরকারি খাসজমিতে। তবে আব্দুল মোমিন বলছেন, ওই জমি তার নিজের ক্রয় করা। প্রয়োজনে হয়েছে বলেই তিনি পুকুর খনন করছেন।

এদিকে রাস্তা কেটে পুকুর খনন বন্ধ করতে ২৪ মে এলাকাবাসীর পক্ষে স্থানীয় রাসেল খান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) বরাবর লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগ পেয়ে ইউএনও রওনক জাহান ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সালমা আক্তার সরেজমিন এলাকা পরিদর্শন করেন। এ সময় তারা বলেন, রাস্তাটি খাসজমি হলে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রাস্তা কেটে তারা পুকুর খনন করতেও নিষেধ করে যান।