শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) সব বর্ষের সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা আগামী ১ জুলাই থেকে অনলাইনে অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া স্নাতক শেষ বর্ষ এবং স্নাতকোত্তরের স্থগিত পরীক্ষা আগামী ১৫ জুন থেকে একই পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে। বৃহস্পতিবার সকালে অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬৫তম একাডেমিক কাউন্সিল সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এটি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলাম।

কোষাধ্যক্ষ জানান, ২০ মে একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় অনলাইনে সেমিস্টার পরীক্ষা নেওয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ওই সভায় পরীক্ষা পদ্ধতি ও ধরন নির্ধারণের জন্য ১৫ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছিল।

পরীক্ষা পদ্ধতি বিষয়ে অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, স্বাভাবিক পদ্ধতিতে সেমিস্টার ফাইনাল ৬০ বা ৭০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা হয়ে থাকে। কিন্তু এখন অনলাইনে প্রতি কোর্সে দু'ভাগে পরীক্ষা নেওয়া হবে। অনলাইনে অনুষ্ঠিত লিখিত ৬০ নম্বরের পরীক্ষায় ৩০ ক্রিয়েটিভ অ্যাসেসমেন্ট পদ্ধতিতে এবং বাকি ৩০ নম্বর ভাইভা পদ্ধতিতে নেওয়া হবে। অন্যদিকে, ৭০ নম্বরের পরীক্ষায় ৩০ নম্বর ক্রিয়েটিভ অ্যাসেসমেন্ট পদ্ধতিতে এবং ৪০ নম্বর ভাইভা পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে। তিনি বলেন, আমরা চাই শিক্ষার্থীদের যেন সঠিকভাবে মূল্যায়ন করা যায়।

তিনি আরও বলেন, অনলাইনের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র সরবরাহ করা হবে এবং প্রশ্নপত্র হাতে লিখে সমাধানের জন্য ১২ ঘণ্টা সময় দেওয়া হবে। নির্দিষ্ট সময় শেষে উত্তরপত্রের ছবি তুলে জুম অ্যাপ বা গুগল ক্লাসরুমে আপলোড করে জমা দিতে হবে। এ ছাড়া গত ২২ ফেব্রুয়ারি স্নাতক শেষ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের স্থগিত পরীক্ষাগুলো আগামী ১৫ জুন থেকে একই পদ্ধতিতে নেওয়া হবে।