সিলেটে নিজামুল হক লিটন (৩৫) নামে এক সংবাদকর্মীর গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাত ৩টা ৪৫ মিনিটে দক্ষিণ সুরমার কুচাই ইউনিয়নের গঙ্গারামেরচক গ্রামের বাড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক তদন্তে সংবাদকর্মী লিটন আত্মহত্যা করেছেন বলে পুলিশ ধারণা করছে। শুক্রবার ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তের পর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

সংবাদকর্মী লিটন দৈনিক খোলা কাগজের দক্ষিণ সুরমা উপজেলা প্রতিনিধি ও স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিলেটবার্তা২৪ ডটকমের নিজস্ব প্রতিবেদক ছিলেন।

লিটনের ভাগিনা জাহেদ আহমদ জানান, বৃহস্পতিবার রাতের খাবার খেয়ে সবাই যার যার ঘরে ঘুমাতে যান। রাত ৩টার দিকে নানার চিৎকার শুনে সবাই ঘর থেকে বের হয়ে দেখি লিটন মামা গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলছেন। তাৎক্ষণিকভাবে পরিবারের লোকজন ওড়না কেটে লাশ নিচে নামান।

গত ৯ মার্চ দক্ষিণ সুরমার লালাবাজার এলাকা থেকে গাঁজাসহ লিটনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছিল জনতা। সেই সময় তাকে ফাঁসানো হয় বলে জানিয়েছেন লিটনের সহকর্মীরা। এ ঘটনায় কয়েকদিন কারাগারে থাকার পর জামিনে বের হন লিটন। তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন বলে পরিবারের বরাতে পুলিশ জানিয়েছে। তার এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

মহানগর পুলিশের মোগলাবাজার থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম জানান, প্রাথমিক তদন্তে আত্মহত্যা বলেই ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।