কক্সবাজার-১ (চকরিয়া ও পেকুয়া) আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য জাফর আলমকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গ এবং চকরিয়া পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র আলমগীর চৌধুরীকে মারধরের অভিযোগে এমপি জাফরের বিরুদ্ধে এ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সরওয়ার আলমকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। 

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সভায় চকরিয়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটুকেও দলীয় পদ থেকে স্থায়ী ভাবে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। লিটুর বিরুদ্ধে চকরিয়া পৌর নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে অবস্থান এবং তার উপর হামলা ও মারধরের অভিযোগ আনা হয়েছে। 

জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী জানান, এমপি জাফর আলম এবং চকরিয়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটুকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগ কার্য নির্বাহী কমিটির সভায় সর্বসম্মত মতামতের ভিত্তিতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

অন্যদিকে, জেলা আওয়ামী লীগের এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে রাতে চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলায় এমপি জাফর আলম-এর কর্মী-সমর্থকরা ব্যাপক বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। এ বিষয়ে জাফর আলম বলেছেন, ‘জেলা আওয়ামী লীগের এই সিদ্ধান্ত দলীয় গঠনতন্ত্র বিরোধী এবং নিয়মনীতি বহিভূর্ত।’ তিনি আরও জানান, তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ‘দলীয় প্রধানের সিদ্ধান্ত ছাড়া দলের একজন এমপিকে এভাবে অব্যাহতি দেয়া যায় না।’ – যোগ করেন জাফর আলম।


মন্তব্য করুন