মশা নিধনের প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে জলাশয়ে ব্যাঙ অবমুক্ত করার পর এবার ছাড়া হয়েছে মাছ। এমন উদ্যোগ নিয়েছে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন। সিটি এলাকার বিভিন্ন খাল ও ড্রেনে ৫০ হাজার তেলাপিয়া মাছ অবমুক্ত করা হয়েছে। এগুলো মশা নিধনে কার্যকর ভূমিকা পালন করবে বলে প্রত্যাশা করছে কর্তৃপক্ষ।

সিটি করপোরেশন সূত্র জানায়, লার্ভিসাইড ও এডাল্টিসাইড প্রয়োগ ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের পাশাপাশি জৈবিক উপায়ে মশক নিধনের কাজ শুরু করেছে সিটি করপোরেশন। ইতোমধ্যে ১০ হাজার ব্যাঙ নগরীর বিভিন্ন খাল, ড্রেন ও জলাশয়ে অবমুক্ত করেছে। এরপর শুক্রবার প্রাথমিকভাবে ৫০ হাজার তেলাপিয়া মাছ অবমুক্ত করা হয় নগরীর বিভিন্ন খাল-ড্রেন ও জলাশয়ে। তেলাপিয়া মাছ মশার লার্ভা ধ্বংস করবে বলছে সিটি করপোরেশন। তবে নগরীর ড্রেন ও খালগুলোতে আবর্জনার দূষণে মাছগুলো বাঁচিয়ে রাখা চ্যালেঞ্জের হবে বলছে স্থানীয়রা।

শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে নগরীর শিল্পকলা একাডেমির পার্শ্ববর্তী খালে জৈবিক উপায়ে মশা নিধন করতে মাছ অবমুক্ত কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. শরিফুল ইসলাম, সংরক্ষিত নারী আসনের কাউন্সিলর সেলিনা আক্তার, খাদ্য ও স্যানিটেশন কর্মকর্তা দীপক মজুমদার প্রমুখ।

সিটি করপোরেশনের খাদ্য ও স্যানিটেশন কর্মকর্তা দীপক মজুমদার বলেন, যে জলাশয়ের পরিবেশ ভালো, সেখানে মাছ অবমুক্ত করা হয়েছে। অন্যগুলোও পরিষ্কার করার প্রক্রিয়া চলছে।

সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, মশা নিধনে নানা পদ্ধতি অবলম্বন করা হচ্ছে। তার অংশ হিসেবে মাছ অবমুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া মশা নিধনে উন্মুক্ত জলাশয়ে হাঁস পালন এবং বৃক্ষরোপণের পরিকল্পনাও রয়েছে।

মন্তব্য করুন