ময়মনসিংহের গৌরীপুরে চুরির অপবাদ দিয়ে দ্বিতীয় শ্রেণি পড়ুয়া স্কুলছাত্র রিফাতকে গাছে বেধে নির্যাতনের ঘটনায় অভিযুক্ত মা-ছেলেকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল হালিম সিদ্দিকী সমকালকে জানান,শিশুটির বাবার দায়ের করা মামলায় শুক্রবার বিকালে আদালতের মাধ্যমে অভিযুক্তদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলার রামগোপালপুর ইউনিয়নের মধুবন আদর্শ গ্রামে (গুচ্ছগ্রাম) গত ৪ জুন চুরির অপবাদ দিয়ে নির্যাতন করা হয় শিশু রিফাতকে। সে গুচ্ছগ্রামের সুরুজ মিয়ার ছেলে। 

প্রতিবেশী ফাতেমা বেগম ও তার ছেলে হিমেল মিয়া ছাগল, মোবাইল ফোন, আমসহ বিভিন্ন জিনিস চুরির অভিযোগ আনে শিশুটির বিরুদ্ধে । 

চুরির অভিযোগে রশি দিয়ে গাছে বেধে নির্যাতন চালালে তার ভিডিও ধারণ করা হয়।

গত বৃহস্পতিবার এটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হলে পুলিশ সুপারের নির্দেশে সেদিন বিকালে পুলিশ ফাতেমা ও হিমেলকে হেফাজতে নেয়।

এ ঘটনায় রিফাতের বাবা সুরুজ মিয়া বৃহস্পতিবার রাতে নির্যাতনকারী মা ও ছেলেকে আসামি করে থানায় লিখিত অভিযোগ দেন। পুলিশ রাতেই মামলাটি নথিভুক্ত করে। 

পরে শুক্রবার মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হলে বিচারক কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।




বিষয় : ময়মনসিংহ শিশু নির্যাতন

মন্তব্য করুন