চট্টগ্রামে এশিয়ান করপোরেশন নামে একটি প্রতিষ্ঠানের সুপারভাইজার হিসেবে কাজ করতেন নজরুল ইসলাম। এক্সক্যাভেটর বেচাকেনা করা প্রতিষ্ঠানটির মাটি খননের ওই যান মাঝেমধ্যে শখের বশে চালাতেন তিনি।

মঙ্গলবার ইয়ার্ডে সাজিয়ে রাখতে এক্সক্যাভেটর চালাচ্ছিলেন তিনি। এ সময় অসাবধানবশত ভারী যানটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে গুরুতর আহত হন নজরুল। পরে সহকর্মীরা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। 

নগরীর হালিশহর নয়াবাজার এশিয়ান করপোরেশনের ইয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। নজরুল ইসলাম সন্দ্বীপ উপজেলার মুছাপুর ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা ছিলেন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই শীলাব্রত বড়ুয়া বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় নজরুলকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার সহকর্মীরা। তাকে হাসপাতালের ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।

নজরুলের সহকর্মী মো. শাহজাহান সমকালকে বলেন, 'আমাদের প্রতিষ্ঠানে এক্সক্যাভেটরগুলো পরিচালনার জন্য চালক রয়েছেন। তারপরও মাঝেমধ্যে শখের বশে এক্সক্যাভেটর চালাতেন সুপারভাইজার নজরুল। মঙ্গলবার সকালে চালককে উঠতে না দিয়ে নিজেই এক্সক্যাভেটর সাজিয়ে রাখছিলেন তিনি। এ সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে।'