বগুড়ার আদমদীঘিতে ব্যাটারিচালিত অটোভ্যান চালক শামিম হোসেনকে (৩০) হত্যার পর তার ভ্যানটি ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় আদমদীঘি উপজেলার নশরৎপুর-কড়ই সড়কের ধনতলা মানকাহার এলাকার মাঠ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। 

শামিম হোসেন নওগাঁ জেলার রানীনগর উপজেলার বেলতা গ্রামের সেকেন্দার আলীর ছেলে। 

এ ঘটনায় নিহতের ভাই জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে আদমদীঘি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন বলে সমকালকে জানিয়েছেন আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দিন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, নিহত শামিম হোসেন রানীনগর ও আদমদীঘি উপজেলার বিভিন্ন সড়কে তার ব্যাটারি চালিত অটোভ্যান চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। গত ২৩ জুন বিকেলে অটোভ্যান নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে যাত্রী নিয়ে আদমদীঘির নসরৎপুর এলাকায় আসে। রাতে নশরৎপুরের ধনতলা মানকাহার নামক স্থানে রাস্তায় দুর্বৃত্তরা তার পথরোধ করে হাত-পা বেঁধে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করে রাস্তার পাশে ফেলে রাখে।পরে তার অটোভ্যান ছিনতাই করে নিয়ে যায়। 

বৃহস্পতিবার সকালে জনতা তার লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন। 

খবর পেয়ে সকাল ১০টায় বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আব্দুর রশিদ, আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার নাজরানা রউফ, ওসি জালাল উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠান।