পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, বিএনপি গত দেড় বছর করোনার সময়ে মানুষের পাশে থাকেনি। বিপদে যারা মানুষের পাশে থাকে না; তাদের রাজনীতি করার নৈতিক অধিকার নেই।

শনিবার সকালে শরীয়তপুরের নড়িয়ায় নিজ নির্বাচনী এলাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে পাঁচ শতাধিক পরিবারকে নগদ অর্থ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

উপমন্ত্রী এ সময় নড়িয়া উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরে ১০ হাজার পিস মাস্ক প্রদান করেন। পরে তিনি নড়িয়ার পদ্মার ডান তীর রক্ষা প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শনসহ চলমান বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শামীম বলেন, বিএনপির নেত্রী খালেদা জিয়া এতিমের টাকা মেরে খেয়ে জেলে যায়। তার ছেলে তারেক রহমান গ্রেনেড হামলায় দণ্ডিত হয়ে বিদেশে পলাতক। তারা ক্ষমতায় থাকতে দেশটাকে লুটে খেয়েছে। ক্ষমতায় যেতে না পেরে পেট্টোল বোমা মেরে মানুষ হত্যা করেছে। বিএনপির নেতারা মুখে বড় বড় কথা বললেও দেশ ও দেশের মানুষের সংকটে তাদের আর দেখা যায় না। দলটির নেতারা মাঝে মাঝে এসি রুমে বসে শব্দ বোমা ফাটায়। এদেশের জনগণ আর তাদের বিশ্বাস করে না। 

তিনি আরও বলেন, একমাত্র বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগই সব সংকটে মানুষের পাশে থাকে। এ কারণেই তিনি মাদার অব হিউমিনিটি।

এ সময় উপমন্ত্রীর সঙ্গে পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পশ্চিম) প্রধান প্রকৌশলী আব্দুল হেকিম, শরীয়তপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী এসএম আহসান হাবীব, শরীয়তপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ রাশেদুজ্জামান, নড়িয়া পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফজলুল হক মাল, সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান খোকন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।