শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, করোনা সংকট মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন। নিচ্ছেন নানামুখী উদ্যোগ। চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ইউনিসেফ এবং সরকারের যৌথ উদ্যোগে অক্সিজেন প্লান্ট স্থাপন করা হয়েছে। শিগগিরই তা চালু হবে। সংকট মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর আহ্বানে সাড়া দিয়ে বহু প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি এগিয়ে এসেছেন। আবুল খায়ের গ্রুপ চাঁদপুরসহ ১৬ জেলায় অক্সিজেন সহায়তা দিচ্ছে। এভাবে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি খাত এগিয়ে না এলে এত বড় সংকট মোকাবিলা করা কঠিন হয়ে যাবে। এ জন্য বড় প্রতিষ্ঠানগুলোকে মানুষের সেবায় এগিয়ে আসতে হবে।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে অপিজেন প্লান্ট চালু হলে হাসপাতালের দেড়শ বেডে অপিজেন দেওয়া যাবে। এ ছাড়া সব উপজেলায় সিলিন্ডার রিফিল করে সাপ্লাই দেওয়া সম্ভব হবে।

শুক্রবার চাঁদপুর আড়াইশ শয্যার সরকারি জেনারেল হাসপাতালে স্থাপিত লিকুইড অক্সিজেন প্লান্টের অগ্রগতি সম্পর্কে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন তিনি। 

এতে ভার্চুয়ালি আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণাবিষয়ক সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ। এ সময় হাসপাতালে উপস্থিত হয়ে অগ্রগতি পরিদর্শন করেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও বিশিষ্ট চিকিৎসক জে আর ওয়াদুদ টিপু ও চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটোয়ারী, মজিবুর রহমান ভূইয়া, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাধা গোবিন্দ গোপ, শিক্ষামন্ত্রীর প্রতিনিধি সাইফুদ্দিন বাবু, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান টুটুল, ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম রোমান, চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা প্রমুখ।