নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে ইমন নামে যুবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় নিহতের আরো দুই বন্ধু হানিফ ও টুটুলকে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে।

শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় ফতুল্লার দেওভোগ পশ্চিমনগর এলাকায় হাজিবাড়ির মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইমন (২২) ফতুল্লার দেওভোগ শেষ মাথা এলাকায় মনির মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া দেলোয়ার ও মোর্শেদা বেগমের ছেলে।

আহত হানিফ জানান, ইমন, টুটুল সহ তারা ৩ বন্ধু হোশিয়ারী থেকে কাজ শেষে হাজিবাড়ির মাঠে বসে মোবাইলে গেমস খেলছিলেন। এ সময় সন্ত্রাসী আব্দুল্লাহ ও তার সহযোগীরা হাজিবাড়ির মাঠ এসে দোকান ঘর ভাংচুর। তখন তারা আমাদেরও এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। এতে ঘটনাস্থলেই ইমন মারা যায়। ওই সময় আমাকে ও টুটুলকেও কয়েকটি কোপ দেয়। তখন আমরা দৌড়ে পালিয়ে যাই।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।