রংপুরে যাত্রীবাহী দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। বুধবার দুপুর দেড়টায় তারাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এসময় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২৯ জন। 

নিহতদের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি দিনাজপুরের পাবর্তীপুর উপজেলার শিংগীমারী গ্রামের তাজিরুল ইসলামের ছেলে শামছুর রহমান (৫০)। 

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা দিনাজপুরগামী হিমাচল নামের একটি যাত্রীবাহী বাস তারাগঞ্জ উপজেলা কমপ্লেক্সের সামনে আসলে বিপরীত দিক সৈয়দপুর থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী বাস হানিফ এন্টারপ্রাইজের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হন। আহত হন কমপক্ষে ৩০ জন। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে আহতদের উদ্ধার করে তারাগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজনের মৃত্যু হয়। 

তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি নুরুনবী প্রধান বলেন, আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ পর্যন্ত চারজন নিহত হয়েছেন। আহতদের অনেকেরই অবস্থা আশঙ্কাজনক। দুমড়েমুচড়ে যাওয়া গাড়ি দুটি ঘটনাস্থল থেকে সরানোর জন্য ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা কাজ করছেন। 


 


বিষয় : রংপুর সড়ক দুর্ঘটনা নিহত

মন্তব্য করুন