বরিশাল বিভাগে বুধবার সকাল ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ১৪ জন। এ সময়ে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৪৯ জন। বৃহস্পতিবার বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে এ তথ্য জানা যায়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগের ছয় জেলায় মোট ৪০১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৪৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ হিসেবে বিভাগে শনাক্ত হার ৩৭ দশমিক ১৬ শতাংশ।

এসময় করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়ে মারা গেছেন আটজন। মৃতদের মধ্যে বরগুনায় তিনজন, পিরোজপুরে দুইজন এবং বরিশাল, ভোলা ও পটুয়াখালীতে একজন করে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ঝালকাঠি জেলাতে তিনজনের নমুনা পরীক্ষায় কারও করোনা শনাক্ত হয়নি।

শেরেবাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় শেবাচিম) হাসপাতালের করোনা সংক্রান্ত তথ্য সরবরাহকারী কর্মকর্তা জাকারিয়া খান স্বপন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় এ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ছয়জন মারা গেছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল জেলায় ২১১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৯৭ জন পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। জেলায় শনাক্ত হার ৪৫ দশমিক ৯৭ শতাংশ। বরগুনায় শনাক্ত হার ৩৬ শতাংশ। এ জেলাতে ২৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় নয়জন পজিটিভ শনাক্ত হন।

পটুয়াখালীতে ২৪ ঘণ্টায় সাতজনের নমুনা পরীক্ষায় দুইজন পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। শনাক্ত হার ২৮ দশমিক ৫৭ শতাংশ।

ভোলা ও পিরোজপুরে শনাক্ত হার প্রায় সমান। ভোলাতে ২৬ দশমিক ৬৭ এবং পিরোজপুরে ২৬ দশমিক ২৫ শতাংশ। ভোলায় ৭৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২০ জন এবং পিরোজপুরে ৮০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২১ জন পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

শেবাচিম হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে, হাসপাতালটির ৩০০ শয্যার করোনা ইউনিটে মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৬৬ জন চিকিৎসাধীন আছেন। এরমধ্যে করোনা পজিটিভ শনাক্ত ১০০ জনের।

বিষয় : বরিশাল করোনা

মন্তব্য করুন