নওগাঁর ধামইরহাটে নামমাত্র দামে কোরবানির পশুর চামড়া বিক্রি হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে যারা কোরবানি দিয়েছেন এমন অনেককেই দাম না পেয়ে চামড়া ফেলেও দিয়েছেন। বুধবার ও বৃহস্পতিবার উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে। 

আমইতাড়া বাজার,মঙ্গলবাড়ী বাজার, ফতেপুর, রাঙ্গামাটি বাজারে গিয়ে দেখা গেছে- এক লাখ টাকার গরুর চামড়া একশ পঞ্চাশ থেকে মাত্র দুইশ টাকায় বিক্রি হয়েছে। ছাগল, ভেড়ার চামড়া পাঁচ টাকায় বিক্রি করলেও কোথাও কোথাও দাম না পেয়ে রাস্তার পাশে ফেলে দিতে দেখা গেছে।

আমইতাড়া বাজারে কোরবানি পশুর চামড়া কিনতে আসা ব্যবসায়ী জগদীশ বলেন, কাঁচা চামড়ার চাহিদা অনেক কম। খুব ভালো হলে গরুর চামড়া একশ থেকে তিনশ টাকায় কিনছি। আর ভেড়া, ছাগলের চামড়া বিশ থেকে তিরিশ টাকায় বেচাকেনা চলছে।

বাজারে গরুর চামড়া বিক্রি করতে আসা ফারুক বলেন, ৮০ হাজার টাকার গরুর চামড়া দুইশ টাকায় বিক্রি করেছি। অথচ কয়েক বছর আগে এ ধরনের চামড়া বাজারে চার থেকে পাঁচ হাজার টাকায় কেনাবেচা হয়েছে। চামড়া ব্যবসাও এখন সিন্ডিকেটের দখলে চলে গেছে।

অপর বিক্রেতা আব্দুর রহমান বলেন, সিন্ডিকেটরা গরিবের পেটে লাথি মারছে অথচ দেখার কেউ নেই। আমরা এতগুলো চামড়া নিয়ে এখন কি করবো।


বিষয় : নওগাঁ ধামইরহাট কোরবানির পশু চামড়া

মন্তব্য করুন