করোনাভাইরাসের টিকা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উপহাস করা যুক্তরাষ্ট্রের এক নাগরিক করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। ভাইরাসটির সঙ্গে দীর্ঘ এক মাস লড়াই করার পর গত বুধবার ক্যালিফোর্নিয়ার বাসিন্দা ওই ব্যক্তি করোনা রিজওন্যাল হাসপাতালে মারা যান। ওই ব্যক্তির নাম স্টিফেন হারমন। তার বয়স হয়েছিল ৩৪ বছর। খবর বিবিসির

হিলসং মেগাচার্চের সদস্য স্টেফেন হারমন টিকার বিরোধিতায় অত্যন্ত সক্রিয় ছিলেন। টিকা না নেওয়ার বিষয়ে তিনি ধারাবাহিকভাবে রসিকতা করেছিলেন। এমনকী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তির আগেও তিনি সামাজিক মাধ্যমে করোনার টিকাদান কর্মসূচি নিয়ে নানাভাবে উপহাস করেছেন।

জুনে তার সাত হাজার অনুসারীর উদ্দেশ্যে টুইট করে তিনি বলেছিলেন, ৯৯টি সমস্যা ধরলেও টিকা যেন আরেকটি না হয়।

হাসপাতালে থাকা অবস্থাতে স্টিফেন সামাজিক মাধ্যম লিখেছেন, তিনি নিউমোনিয়ায় ভূগছেন। তার অক্সিজেন লেভেলও কমে গেছে। তিনি লিখেছিলেন, তোমরা সবাই দোয়া কোরো, তারা সত্যি আমাকে টিউবের ভেতরে ঢুকিয়ে ভেন্টিলেটরে রাখতে চায়।

বুধবার শেষ টুইটে হারমন জানান, তিনি ভেন্টিলেশনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সেই সঙ্গে এটাও লেখেন, জানিনা কখন আমি জেগে উঠবো, সবাই দোয়া কোরো।

করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করতে থাকলেও হারমন জানান, তিনি টিকা নেবেন না, তার ধর্মীয় বিশ্বাসই তাকে রক্ষা করবে।

মৃত্যুর আগে মহামারি এবং টিকা নিয়ে মজা করা হারমন জানান, যুক্তরাষ্ট্রের রোগ বিশেসজ্ঞ ডা. অ্যান্টনি ফৌসির চেয়ে তিনি বাইবেলের ওপর ভরসা রাখেন।

বৃহস্পতিবার এক টুইট বার্তায় হিলসংয়ের প্রতিষ্ঠাতা ব্রায়ান হিউস্টন স্টিফেনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।