ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার ধাপেরহাট এলাকায় পড়ে আছে বস্তাভর্তি শত শত চামড়া। শুক্রবার রাতে কে বা কারা এই চামড়ার বস্তাগুলো মহাসড়কের ধারে ফেলে গেছে। এখন সেই চামড়ার পচা দুর্গন্ধে মহাসড়ক দিয়ে চলাচল করাই কষ্টকর হয়ে পড়েছে। দুর্গন্ধে চারপাশের পরিবেশ ভারি হয়ে উঠেছে।

ধাপেরহাট বাজার বণিক সমিতির সভাপতি নুর মোহাম্মদ মিলন জানান, শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেন বস্তাভর্তি চামড়া আর চামড়া। এই মহাসড়কের ধাপেরহাট গোসাইজানি ব্রিজ থেকে পাশের বিটিসি মোড় পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার এলাকাজুড়ে পড়ে আছে চামড়াভর্তি বস্তাগুলো।

মহাসড়ক সংলগ্ন উপজেলার তীলকপাড়া গ্রামের আমিনুল ইসলাম স্বাধীন জানান, হয়তো উপযুক্ত মূল্য না পাওয়ায় চামড়া বিক্রি করা সম্ভব হয়নি। পচন শুরু হওয়ায় অসাধু ব্যবসায়ী চামড়াগুলো রাতের আঁধারে মহাসড়কের ধারে ফেলে গেছেন।

সাদুল্যাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদ রানা জানান, শুক্রবার রাতে কেউ চামড়াগুলো মহাসড়কের ধারে ফেলে দিয়ে গেছেন। চামড়াগুলোতে পচন ধরায় দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। দ্রুত চামড়াগুলো সরিয়ে ফেলার ব্যবস্থা করা হবে।
সাদুল্যাপুর শহরের চামড়া ক্রেতা মোখলেছুর রহমান জানান গত ঈদে যে চামড়া বিক্রি হয়েছে ৮০০ টাকায়, এবার সেই চামড়া এর অর্ধেক দামেও বিক্রি হচ্ছে না। এবার বড় গরুর চামড়া বিক্রি হয়েছে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকায়। ছাগলের চামড়া ফ্রিতেও কেউ নিচ্ছে না।