বরিশাল শের ই বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় হাসপাতালের সামনের ওষুধের দোকানে অভিযান চালিয়েছেন জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ অভিযানে মেয়াদোত্তীর্ণ, অনুমোদনহীন ওষুধ এবং চিকিৎসকের জন্য দেওয়া নমুনা (স্যাম্পল) ওষুধ বিক্রি করায় পাঁচটি ওষুধের দোকানকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। 

সোমবার দুপুরে বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় হাসপাতালের সামনে এই অভিযান চালানো হয় বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসনের গণমাধ্যম শাখার দায়িত্বে থাকা সহকারী কমিশনার সুব্রত বিশ্বাস।  

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, সোমবার দুপুর ১২টার দিকে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট গৌতম বাড়ৈর উপস্থিতিতে জেলা প্রশাসন বরিশালের তিনজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মারুফ দস্তগীর, মহিউদ্দিন আল হেলাল ও মো. আতাউর রাব্বি শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় হাসপাতাল এলাকায়  ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন। 

এসময় ওষুধ আইন, ১৯৪০ এর ১৮ ধারার উপধারাসমূহ লঙ্ঘন করে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ, চিকিৎসকের নমুনা (স্যাম্পল) ওষুধ এবং অনুনোমোদিত ওষুধ বিক্রি করার দায়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মারুফ দস্তগীর বরগুনা মেডিকেল হলকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। একই সময় একই অপরাধে নির্বাহী  ম্যাজিস্ট্রেট মহিউদ্দিন আল হেলাল মেসার্স পলি মেডিকেল হলকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। পাশাপাশি অপর একটি অভিযানে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আতাউর রাব্বী বিভিন্ন অপরাধে জাহানারা মেডিকেল হলকে ৩০ হাজার টাকা, মহসিন মেডিকেল হলকে ৩০ হাজার টাকা এবং রূপালী মেডিকেল হলকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এসময় বরিশাল ওষুধ প্রশাসনের তত্ত্বাবধায়ক অদিতি স্বর্ণা উপস্থিত ছিলেন। এসময় জব্দ করা বিপুল পরিমাণ মেয়াদোত্তীর্ণ এবং অনুমোদনহীন ওষুধ পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।