বগুড়ায় পাচারের উদ্দেশ্যে অপহরণ করা দুই মাদ্রাসাছাত্রীকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব। সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে শহরের খান্দার এলাকার একটি বাসা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। এ সময় মারুফ হাসান নামে এক অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

মারুফ জেলার নন্দীগ্রাম উপজেলার কল্যাণপুর গ্রামের মাহফুজার রহমানের ছেলে। গত ২২ জুলাই নন্দীগ্রাম থেকে ওই দুই ছাত্রীকে কৌশলে অপহরণ করা হয়।

 মঙ্গলবার র‌্যাব-১২ বগুড়ার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ২২ জুলাই নন্দীগ্রাম এলাকার মাদ্রাসা পড়ুয়া বান্ধবী ওই দুই ছাত্রী নিজ নিজ বাড়ি থেকে পাশের বাড়ি যাওয়ার কথা বলে বের হয়। কিন্তু পরে তারা বাড়িতে ফিরে না আসায় অভিভাবকরা আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে খোঁজ করেন। কোনো খোঁজ না পেয়ে অভিভাবকরা ঘটনাটি নন্দীগ্রাম থানা এবং র ্যাব-১২ বগুড়াকে জানান।

র্যাব-১২ বগুড়ার কোম্পানি কমান্ডার (লে. কমান্ডার) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, অপহরণকারী চক্র ওই দুই ছাত্রীকে ফুসলিয়ে নন্দীগ্রাম থেকে বগুড়া শহরে নিয়ে আসে। অপহরণকারীরা তাদের চট্টগ্রামে নিয়ে পাচারকারীদের কাছে বিক্রি করে দেওয়ার পরিকল্পনা করে। কিন্তু লকডাউনের জন্য সুবিধাজনক কোনো গাড়ি না পাওয়ায় তারা শহরে একটি বাসায় মেয়ে দুটিকে আটকে রাখে এবং ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়।

র‌্যাব কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন আরও জানান, সোমবার রাতে অভিযানের সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে অপহরণকারী চক্রের অন্য সদস্যরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় মামলা করে গ্রেপ্তার মারুফ হাসানকে নন্দীগ্রাম থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।