জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার পর এক ব্যক্তি বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। 

শুক্রবার সকালে পৌর শহরের সাজিপাড়া মহল্লার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আয়েশা মালেকার লাশ উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। আত্মহত্যার চেষ্টা চালানো আলী আকবরকে পুলিশ পাহারায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আলী আকবর ও তার স্ত্রী আয়েশা মালেকার সংসারে পারিবারিক কলহ লেগেই ছিল। ২৫ বছরের দাম্পত্য জীবনে দুই মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে তাদের। শুক্রবার সকালে সন্তানরা বাড়িতে ছিল না। এ সময় পারিবারিক কলহের জের ধরে আকবর স্ত্রী আয়েশাকে বাড়ির নিজ কক্ষে ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে। পরে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে সে। প্রতিবেশীরা বিষয়টি টের পেয়ে দরজা ধাক্কা দিয়ে খুলে আয়েশার রক্তাক্ত মরদেহ দেখতে পান। পাশের ঘরে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় পাওয়া যায় আকবরকে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে। আর আকবরকে উদ্ধারের পর প্রথমে আক্কেলপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে পুলিশ পাহারায় বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আক্কেলপুর থানার ওসি সাইদুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিহতের ছেলেমেয়েরা জানান, জমি নিয়ে বাবা-মায়ের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হতো। বাবা জমি বিক্রি করতে চায়, কিন্তু সন্তানদের ভবিষ্যৎ চিন্তা করে মা এতে বাধা দিলে বাবা মাকে নির্যাতন করত।