ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

মহানগর সভাপতিকে বহিষ্কার দাবি

নির্বাচন ঘিরে বরিশাল আ.লীগের দু’পক্ষ মুখোমুখি

নির্বাচন ঘিরে বরিশাল আ.লীগের দু’পক্ষ মুখোমুখি

বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতির অপসারণ দাবিতে বিক্ষোভ

বরিশাল ব্যুরো

প্রকাশ: ০২ ডিসেম্বর ২০২৩ | ২২:২৫ | আপডেট: ০২ ডিসেম্বর ২০২৩ | ২২:২৬

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে বরিশাল-৫ (মহানগর-সদর) আসনে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের বিরোধ ক্রমেই বাড়ছে। শনিবার সকালে নৌকার প্রার্থী পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক শামীম ও সিটি মেয়র আবুল খায়ের আবদুল্লাহর সমর্থকরা মহানগর সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ কে এম জাহাঙ্গীরকে বহিষ্কারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন।

আজ সকালে তারা নগরের দক্ষিণ সদর রোড কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল করেন। এ সময় বিক্ষোভকারীরা এ কে এম জাহাঙ্গীরকে কটাক্ষ করে নানা স্লোগান দেন। কয়েক হাজার নেতাকর্মী বিক্ষোভে অংশ নেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, জাহাঙ্গীর নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধাচারণ করে যেসব কথা বলেছেন, তাতে তাঁর মহানগরের সভাপতি পদটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। তাঁকে অবিলম্বে বহিষ্কার করতে হবে।

বক্তারা দাবি করেন, জাহাঙ্গীর আগে থেকেই আওয়ামী লীগের মধ্যে ভিন্নমতাদর্শী নেতা। সত্তরের দশকে আওয়ামী লীগের ভাঙনে তিনি দলত্যাগীদের সঙ্গে ছিলেন। তা ছাড়া তিনি বিনা ভোটে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হন। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আফজালুর করীম।

অপরদিকে পার্বত্য শান্তি চুক্তি দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার নামে আজ বিকেলে সমাবেশ করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মহানগর সাধারণ সম্পাদক ও সদ্য সাবেক মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর অনুসারীরা। ওই সমাবেশে সাদিক আবদুল্লাহ স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকবেন বলে ঘোষণা করা হয়।

সমাবেশে বলা হয়, দলের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, হেভিওয়েট স্বতন্ত্র প্রার্থীরা নির্বাচনী মাঠে থাকতে পারবেন। সুতরাং, কোনো ষড়যন্ত্র করে সাদিক আবদুল্লাহকে মাঠ থেকে সরানো যাবে না।

গত বুধবার শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশের নামে সাদিকের শোডাউনে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক ও সিটি মেয়র আবুল খায়ের আবদুল্লাহকে ইঙ্গিত করে বক্তব্য দেন জাহাঙ্গীর। তিনি বলেন, ‘এবার কাউকে খালি মাঠে গোল দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হবে না। প্রশাসন দিয়ে বাক্স ভরবেন, সেই সুযোগ নেই। সিটি নির্বাচনে তারা আমাদের গাধা বানিয়েছে। আমরা কোনো বহিরাগতকে সুযোগ দেব না।’

আরও পড়ুন

×