বরিশাল নগরীর নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে ঢাকাগামী বাসযাত্রীদের মাঝে খাবার বিতরণ করেছে বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ)। দলটির পক্ষ থেকে রোববার দুপুরে ৪ শতাধিক বাসযাত্রীকে খিচুড়ির প্যাকেট দেয়া হয়। 

জেলা বাসদের আহ্বায়ক প্রকৌশলী ইমরান হাবিব রুমন বলেন, গার্মেন্টসসহ বেসরকারি শিল্প প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ায় ওইসব প্রতিষ্ঠানে কর্মরত দক্ষিণাঞ্চলের মানুষগুলো শনিবার থেকে কর্মস্থলে ফিরতে শুরু করেছেন। লকডাউনে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় বিভাগের প্রত্যন্ত এলাকা থেকে তাদের বরিশাল নগরীর নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনাল পর্যন্ত পৌঁছাতে নানা দুর্ভোগ পোহাতে হয়। দরিদ্র শ্রেণির অনেকে আছেন যাদের হোটেলে খাওয়ার সামর্থ নেই। গত শনিবার থেকে এ মানুষগুলোর দুর্গতি দেখে বাসদ তাদের খাবার পরিবেশনের সিদ্ধান্ত নেয়। রোববার দুপুরে ৪শ বাসযাত্রীকে খাবার দেওয়া হয়।

প্রকৌশলী রুমন বলেন, বাসদের কমিউিনিটি কিচেন কর্মসূচির আওতায় প্রতিদিন ৮০০ লোকের জন্য খিচুড়ি রান্না করা হয়। যতদিন কর্মস্থলমুখী যাত্রীদের ভিড় থাকবে, ততদিন বাস টার্মিনালে ৪০০ করে প্যাকেট বিতরণ করা হবে। 

উল্লেখ্য, বরিশালসহ বিভাগের অপর তিন জেলা পটুয়াখালী, ঝালকাঠী ও বরগুনা থেকে সড়কপথে ঢাকা যেতে হয় বরিশাল নগরীর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল দিয়ে। গত শনিবার থেকে এ টার্মিনাল ও তার আশপাশের সড়কে ঢাকাগামী যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় রয়েছে। 

এ দিকে গণপরিবহন বন্ধ রেখে কারখানা খোলার ঘোষণা দিয়ে শ্রমিকদের নিরাপত্তা, হয়রানি ও দুর্ভোগের প্রতিবাদে বাসদ রোববার বরিশাল নগরীতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। বেলা ১১ টায় নগরীর অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সামনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। 

বাসদ বরিশাল জেলা কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী ইমরান হাবীব রুমনের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সদস্য সচিব ডা. মনিষা চক্রবর্তীসহ আরও অনেকে।