ফরিদপুরে সালথায় লাবলু ফকির (৪০) নামের এক ভ্যানচালকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।  মঙ্গলবার সকালে উপজেলার আটঘর ইউনিয়নের মীরকান্দী এলাকার একটি খোলা মাঠ থেকে গলায় রশি পেঁচানো অবস্থায় মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত লাবলু মীরকান্দী গ্রামের হোসেন ফকিরের ছেলে । তার ২ মেয়ে ও ১ ছেলে রয়েছে। পুলিশের ধারণা,  লাবলুকে হত্যা করে তার ভ্যান ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা।

লাবলুর স্ত্রী হনুফা বেগম জানান, তার স্বামী একজন নিরীহ লোক ছিলেন, তার তেমন কোন শত্রুও ছিল না । তিনি হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি করেন।
না
লাবলুর ভাই বাবলু জানান, সোমবার লাবলু বাড়ি থেকে ব্যাটারিচালিত ভ্যান গাড়ি নিয়ে বের হন। রাতে লাবলু বাড়িতে ফিরে না আসায় তারা বিভিন্ন জায়গায় লাবলুর খোঁজ করেন।  কিন্তু কোথাও তার সন্ধান পাননি।  সকালে গলায় রশি পেঁচানো অবস্থায় মাঠে ভাইয়ের মরদেহ পড়ে থাকার খবর পান। পরে তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ শনাক্ত করে থানায় খবর দেন। পরে পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে।

সালথা থানার ওসি মো. আসিকুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।