শুক্রবার বোনের বিয়ে। তাই ফুল কিনতে যাচ্ছিলেন জীবন হোসেন; সঙ্গে ছিল তার দুই স্বজন। কিন্তু গন্তব্যে পৌঁছানোর আগেই সড়ক দুর্ঘটনায় চলে ঝরে গেল এই তিন তরুণের প্রাণ।

বুধবার দুপুরে যশোর-বেনাপোল সড়কের বেনেয়ালীতে মোটরসাইকেল থেকে সড়কে পড়ে গিয়ে তাদের মৃত্যু হয়। জীবন হোসেন (১৯) ছাড়া নিহত অন্য দুইজন হলেন- নয়ন হোসেন (২০) ও তৌহিদুল ইসলাম (১৬)।

নিহত জীবন যশোর শহরের শংকরপুরের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে। অন্য দুইজনের বাড়ি মণিরামপুর উপজেলার রোহিতা ইউনিয়নের নওয়াপাড়া গ্রামে।

যশোর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি রূপন কুমার সরকার জানান, জীবন মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন এবং তিনি ঘটনাস্থলে নিহত হন। বাকি দুইজনের মৃত্যু হয়েছে যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায়।

নাভারণ হাইওয়ে থানার ওসি আসাদ উজ জামান জানান, বেনাপোলমুখী মোটরসাইকেলটি ঝিকরগাছার বেনেয়ালি বাজারে একটি রিকশাভ্যানকে পাশ কাটাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা ইজিবাইকের সঙ্গে এর সংঘর্ষ হয়। দ্রুতগামী মোটরসাইকেলের তিন আরোহী রাস্তায় ছিটকে পড়েন। মাথা থেতলে গিয়ে ঘটনাস্থলে মত্যু হয় জীবনের।

নিহত তৌহিদের ফুপু জাহিদা বেগম জানান, নিহতরা পরস্পর স্বজন। আগামী শুক্রবার নয়নের বোনের বিয়ে। এ জন্য ফুলের ব্যবস্থা করতে তারা তিনজন ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালি যাচ্ছিলেন।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক মেহজাবিন মুক্তি জানান, তৌহিদুল ও নয়ন হোসেনের বুকে ও মাথায় আঘাতের কারণে মৃত্যু হয়েছে।