করোনাভাইরাসের টিকা পুশ করে এবার সমালোচনার মুখে পড়েছেন এক ইউপি চেয়ারম্যান। কুমিল্লার হোমনায় এক নারীকে টিকা দিয়ে সেই ছবি ফেসবুকে শেয়ার করার পর এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ভাষানিয়া ইউনিয়ন পরিষদ কেন্দ্রে। এর আগে রাজশাহীতে এক বৃদ্ধের শরীরে করোনা টিকা পুশ করে সমালোচিত হয়েছিলেন এমপি ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক।

প্রকাশিত ছবিতে দেখা গেছে, গত ৭ আগস্ট ভাষানিয়া ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম এক নারীর শরীরে টিকা পুশ করেন। আর পাশে সংশ্নিষ্ট স্বাস্থ্যকর্মীরা দাঁড়িয়ে ছিলেন। পেছনে অনেক লোক টিকার জন্য অপেক্ষা করছিলেন। সেদিন ওই ইউনিয়ন পরিষদ কেন্দ্রে গণটিকা কার্যক্রম উদ্বোধন করেন ইউএনও রুমন দে। সে সময় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আবদুস ছালাম সিকদার, ওসি আবুল কায়েস আকন্দ, ইউপি চেয়ারম্যান কামরুলসহ পরিষদের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

চেয়ারম্যান কামরুল বলেন, 'আমি টিকা পুশ করিনি। জনসচেতনতা বাড়াতে অভিনয় করেছিলাম মাত্র। তা ছাড়া এ বিষয়ে আমার প্রশিক্ষণ আছে। আর এ বিষয়ে কেউ অভিযোগও করেনি। একটি ভুয়া ফেসবুক আইডি থেকে ওই ছবি ছড়ানো হয়েছে।'

ডা. আবদুস ছালাম জানান, গত ৭ আগস্ট গণটিকা কার্যক্রমের উদ্বোধনের পর তিনি চলে গেছেন। পরে শুনেছেন- চেয়ারম্যান কামরুল এক নারীকে টিকা দিয়েছেন, এমন একটি ছবি তার ফেসবুকে পোস্ট করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ইউএনও রুমন দে জানান, এক নারীকে চেয়ারম্যান কামরুলের টিকা পুশ করার ছবি ফেসবুকে পোস্ট করা হয়েছে। বিষয়টি দুঃখজনক। খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে, গত ৭ আগস্ট রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার মাড়িয়া ইউনিয়নের সালেহা-ইমারত মেডিকেল সেন্টারে গণটিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করতে গিয়ে এক বৃদ্ধের শরীরে করোনার টিকা পুশ করেন স্থানীয় এমপি ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক। এ সংক্রান্ত ছবি ও ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় ওঠে।