সুনামগঞ্জের ছাতকে গত তিন দিনের টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে বেড়েই চলেছে সুরমাসহ তিনটি নদীর পানি। ফলে উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের অধিকাংশ এলাকায় নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। কিছু এলাকায় দেখা দিয়েছে বন্যা।

সুরমা নদীর পানি শনিবার দুপুর পর্যন্ত কয়েকটি স্থানে বিপৎসীমার ওপর দিয়েই প্রবাহিত হয়েছে। দুপুর পর্যন্ত সুরমা ৩০ এবং পাহাড়ি নদী চেলা ও ইছামতীর পানি বিপৎসীমার ৬০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। উপজেলায় ৩১৫টি গ্রামের অন্তত পাঁচ হাজার ঘরবাড়িতে অবস্থানরত জনসাধারণ বন্যাকবলিত হয়ে পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছেন। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে বড় বন্যার আশঙ্কা করা হচ্ছে। উপজেলার বিভিন্ন বিল-হাওরে পানি বেড়ে যাওয়ায় রোপা আমনের বীজতলা তলিয়ে গেছে।

প্রত্যন্ত অঞ্চলের বেশিরভাগ গ্রামীণ সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। শহরের মার্কেট ও অলিগলিতে পানি জমে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন স্থানীয়রা। সুরমা নদীতে নোঙর করা কার্গো জাহাজে মালপত্র লোডিং-আনলোডিং বন্ধ রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বালু-পাথর ব্যবসায়ীরা।